Press "Enter" to skip to content

শাহনাওয়াজ বললেন আবার ঠাকরে কেও কাঁদতে না হয়

নয়াদিল্লি: শাহনাওয়াজ হুসেন আবার বিজেপির তরফ থেকে মহারাষ্ট্রের নতুন মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে বিতর্ক শুরু করেছেন।

বিজেপি নেতা মহারাষ্ট্র বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ পরীক্ষার আগে শিবসেনা নেতা এবং মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকে কটূক্তি করেছেন।

তিনি বলেছেন যে এটা আবার একটা নতুন কুমারস্বামী ঘটনা না হয়।

এমনও হতে পারে যে উদ্ধব ঠাকরে কেও পরে কাঁদতে দেখা যেতে পারে।

বিজেপির সিনিয়র মুখপাত্র সৈয়দ শাহনওয়াজ হুসেন বলেছেন, “৪ নম্বরের দলীয় কংগ্রেস, ৩ নম্বরের জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির সাথে মিলিত হয়ে, ২ নম্বরে দল শিবসেনার নেতাকে মুখ্যমন্ত্রী করেছিলেন।

এক নম্বরে বিজেপি বিরোধী আসনে বসে আছে।

বিজেপি ম্যান্ডেট পেয়েছিল, কিন্তু বাকি সব দল নিজেদের কারসাজি দেখিয়েছে।

এতে শিবসেনা, কংগ্রেস এবং এনসিপি তিনজন বিধায়ক ক্ষুব্ধ হয়েছেন।

খোলামেলা ভোটের মাধ্যমে মহারাষ্ট্র বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ পরীক্ষা নেওয়ার

সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে শাহনওয়াজ হুসেন বলেছিলেন যে

মিঃ ঠাকরের বিজেপি থেকে কোনও বিপদ ছিলো না তবে তিনি নিজের

বিধায়কদের উপর বিশ্বাস করেননি।

কংগ্রেস ও এনসিপি-র ক্ষুব্ধ বিধায়কদের নিয়ে কোনও আস্থা নেই।

এ কারণেই তারা ঐতিহ্য ভঙ্গ করে প্রোটিম স্পিকারকে প্রতিস্থাপন করেছেন।

তিনি বলেছিলেন যে শ্রী ঠাকরে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবেন তবে কীভাবে তিনি মহারাষ্ট্রের পুরো মানুষের আস্থা অর্জন করবেন।

শিবসেনা সব কিছু লুট করে এবং কংগ্রেসের বিরুদ্ধে প্রয়াত বালাসাহেব ঠাকরের মূল নীতি উপেক্ষা করে সরকার গঠন করেছে।

শাহনাওয়াজ হুসেন ঠাকরে সরকারের মেয়াদে সন্দেহ করেছেন

ঠাকরে সরকার কত দিন চলবে সেই সম্পর্কে সংশয় প্রকাশ করে তিনি

বলেছিলেন, “কংগ্রেস কুমারস্বামীকে” করে তোলে (জনতা দল সেকুলার

নেতা এবং কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী)।

পাছে মিঃ ঠাকরেও ভবিষ্যতে চোখের জল ফেলতে হবে। ।

মিঃ শারদ পাওয়ার মনোভাব ছিল বিদ্রোহ বা নাটক, এই সময়টিই বলবে।

ঝাড়খণ্ডে প্রথম পর্বের ভোটগ্রহণের মধ্যে বিজেপির প্রত্যাশা সম্পর্কে জানতে

চাইলে বিজেপি নেতা বলেছিলেন যে রাজ্য থেকে আসা প্রতিবেদনগুলি

উত্সাহজনক।

বিজেপির বিরোধীদের শিবিরগুলি ভোটকেন্দ্রে শূন্য রয়েছে এবং বিজেপি

শিবিরে ভিড় উপচে পড়েছে।

এগুলি বিজেপির পক্ষে শুভ লক্ষণ এবং তাতে কোনও সন্দেহ নেই যে

ঝাড়খণ্ডে বিজেপি পরবর্তী সরকার গঠন করবে।

তিনি বলেছিলেন যে রাজ্যের লোকেরা তাদের ঘরে বসে না থেকে

বরং সর্বোচ্চ ভোট দেওয়ার জন্য আবেদন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from তাজা খবরMore posts in তাজা খবর »
More from বিবৃতিMore posts in বিবৃতি »
More from মহারাষ্ট্রMore posts in মহারাষ্ট্র »

Be First to Comment

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!