Press "Enter" to skip to content

উত্তর-পূর্বের বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বড় ধরনের পদক্ষেপ নেওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারতীয় সেনা

ভূপেন গোস্বামী

গুয়াহাটি: উত্তর-পূর্বের বিদ্রোহীদের জন্য প্রস্তুতি চলছে সেনাবাহিনীর।

ভারতীয় সেনাবাহিনী উত্তর পূর্বে নিজেকে পুনর্গঠিত করছে।

এই প্রস্তুতি সম্পর্কে জ্ঞাত ধারণা করা হয় যে ভারতীয় সেনাবাহিনী উত্তর পূর্বের বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বড় পদক্ষেপ নিতে নিজেকে প্রস্তুত করছে।

একই সঙ্গে, এই অভিযানের আওতায় ধীরে ধীরে এই অঞ্চলে সক্রিয় হওয়া মাওবাদীদের অপসারণের পরিকল্পনা রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর।

তবে দিল্লির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সূত্র বলছে যে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে এই বড় প্রচারটি নকশাল প্রভাবিত সমস্ত রাজ্যেই চলবে।

এজন্য প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হচ্ছে।

দেশের আটটি নতুন জেলায় নকশালবাদের প্রভাবের রিপোর্টের পরে আরও সজাগ থাকার আদেশ জারি করা হয়েছে।

মাওবাদীদের সক্রিয় হওয়ার খবর পাওয়া যায় যে জেলাগুলির মধ্যে রয়েছে অন্ধ্র প্রদেশের পশ্চিম গোদাবরী, ছত্তিসগড়ের কবিড়ধাম, মধ্য প্রদেশের মন্ডলা, ওড়িশার আঙ্গুল এবং বৌড, কেরালার মল্লপুরম, পালক্কাদ ও ওয়ায়নাড জেলা।

এইভাবে, সারাদেশে ১১ টি রাজ্যের 90 টি জেলা এখন নকশাল প্রভাবিত জেলার তালিকায় স্থান পেয়েছে।

যাইহোক, সূত্রগুলি বলছে যে ইতিমধ্যে এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ৪৪ টি জেলা এখন নকশালবাদ থেকে মুক্ত তালিকায় রাখা হয়েছে।

উত্তর-পূর্বের মিয়ানমার ও ভুটানের সীমান্তে বিদ্রোহীদের তৎপরতা নজরে এসেছে

ভারতীয় সেনাবাহিনী মিয়ানমার সেনাবাহিনী নিয়ে একটি অভিযান শুরু করেছে।

গত পাঁচ মাসে ভারতীয় সেনা ও মিয়ানমার সেনাবাহিনী বেশ কয়েকবার যৌথ অভিযান পরিচালনা করেছে।

এই অভিযানের অংশ হিসাবে মিয়ানমারের সীমান্তে পরিচালিত উত্তর-পূর্বের সমস্ত জঙ্গি সংগঠনের ক্যাম্পগুলি ভেঙে ফেলা হয়েছে।

অপারেশন সানরাইজ নামে অভিহিত এই যৌথ সামরিক অভিযানের প্রত্যক্ষ লক্ষ্য হ’ল অস্ত্রের শক্তিতে সন্ত্রাস ছড়িয়ে দেওয়া সন্ত্রাসীদের নিশ্চিহ্ন করা।

উত্তর-পূর্বের সমস্ত বিদ্রোহী, যারা কয়েক দিনের নীরবতার পরে পুনরায় দলবদ্ধ হয়েছিল, তারা ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিয়মিত তত্ত্বাবধানে রয়েছে।

অন্যদিকে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী কেবল তার অঞ্চলে এই জাতীয় ক্রিয়াকলাপগুলিতে নজর রাখছে না, এমনকি কোনও সশস্ত্র সংগঠনকেও সেখানে দাঁড়াতে দিচ্ছে না।

বিদ্রোহীদের আর কোন ছাড় দেবে না সেনা বাহিনী

মিয়ানমার থেকে তাড়া খেয়ে চলে আসা বিদ্রোহীদের আবার করে নতূন থেকে ঘাঁটি তৈরী করতে দিতে চায় না ভারতীয় সেনাবাহিনী।

দিল্লীর বৈঠকের পর এই ব্যাপার যে সব আগাম খবর আছে, তার ভিত্তিতে নতূন করে অপারেশন চালাবার প্রস্তুতি নিয়ে চলেছেন সেনা।

এই ব্যাপার সেনা কর্তারা মুখ খুলতে অরাজি।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from প্রতিরক্ষাMore posts in প্রতিরক্ষা »
More from সন্ত্রাসবাদMore posts in সন্ত্রাসবাদ »

One Comment

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!