Press "Enter" to skip to content

মালদা শহরের এক নার্সিংগ হোমের বিরুদ্ধে সন্তান বিক্রির অভিযোগ

মালদাঃ মালদা শহরের এক নার্সিং হোমের বিরুদ্ধে সদ্যোজাত সন্তান বিক্রি করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল ৷

এনিয়ে আজ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওই নার্সিং হোম চত্বর৷

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ৷

যদিও নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ওই প্রসূতি নির্দিষ্ট সময়ের আগে সন্তান প্রসব করেছিলেন৷

সদ্যোজাত অত্যন্ত সংকটজনক ছিল৷ পরবর্তীতে সেই সন্তানের মৃত্যু হয়৷

তীব্র প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে গতকাল মালদা শহরের গাবগাছি এলাকার একটি নার্সিং হোমে ভরতি হয়েছিলেন বৈষ্ণবনগরের কামাত গ্রামের বাসিন্দা ঝুমা বিবি৷

তাঁর স্বামী সাবিরুল ইসলাম পেশায় লরিচালক৷

কর্মসূত্রে তিনি ইংরেজবাজারের কাঞ্চনটার এলাকায় বসবাস করেন৷

ঝুমাদেবীর পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, গতকাল বিকেলে তাঁরা প্রসূতিকে নার্সিং হোমে ভরতি করেন৷

রাত সাড়ে ৯টায় তিনি এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন৷ রাতে জীবিত সন্তানকে দেখানোও হয়েছিল৷

কিন্তু আজ সকাল থেকে আর বাচ্চাকে দেখতে দেওয়া হয়নি৷

রাত ১০টা নাগাদ যখন বাচ্চার বাবা বাড়ি যায়, তখন নার্সিং হোম থেকে ফোন করে বলা হয়, বাচ্চা আর নেই৷

আমরা তখন মরা বাচ্চাই দেখতে চাই৷

বাচ্চার বাবা বাচ্চার মৃতদেহ চাইলে নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ তাকে মারধর করে সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয়৷

পরে লোকজন নিয়ে নার্সিং হোমে যাওয়া হলে তারা বলে, বাচ্চা কাচের ভিতর ভরা রয়েছে৷

তবে রোগী ঠিক আছে৷ পরিবারের সদস্যদের সন্দেহ, নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষ বাচ্চা চুরি করে নিয়েছে৷

এদিকে নার্সিং হোমের তরফে বিকাশ দাস বলেন, বাচ্চা চুরির কোনও অভিযোগ নেই৷

ঝুমা বিবি ৭ মাসের সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন৷ সেই বাচ্চাকে বাঁচানো সম্ভব ছিল না৷

বাচ্চার মাকে বাঁচানোই তাঁদের মূল লক্ষ্য ছিল৷

বাচ্চার মাকে বাঁচাতে তাঁর জরায়ু কেটে বাদ দিতে হয়েছে৷

উত্তেজিত হয়েই এখন বাচ্চার পরিবারের সদস্যরা নার্সিং হোম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে৷

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from তাজা খবরMore posts in তাজা খবর »
More from পশ্চিমবঙ্গMore posts in পশ্চিমবঙ্গ »
More from বিবৃতিMore posts in বিবৃতি »
More from স্বাস্থ্যMore posts in স্বাস্থ্য »

3 Comments

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!