Press "Enter" to skip to content

২৫ বছর ধরে প্রতিমা গড়ে চলেছেন হরিশ্চন্দ্রপুরের মহিলা মৃৎশিল্পী পবিত্রা দাস

মালদাঃ বিগত ২৫ বছর ধরে প্রতিমা গড়ে চলেছেন হরিশ্চন্দ্রপুরের মহিলা মৃৎশিল্পী পবিত্রা দাস।
সংসারের অভাব ঘোচাতে পবিত্রাদেবী বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে এসে মাটি, রং , তুলি  হাতে তুলে নিয়েছিলেন।
শ্বশুরের হাত ধরে মূর্তি গড়ার কাজ শেখা।
আর তারপরেই সেই কাজ এখন পেশা এবং নেশায় পরিণত হয়েছে তাঁর।
সংসারের কাজ সামলে প্রতিমা তৈরীর কাজ করেন।
এই বছর স্থানীয় দু’টি ক্লাবের দুর্গা প্রতিমা তৈরি করছেন প্রবিত্রাদেবী ।
তাঁর এই কাজে হাত বাড়িয়েছেি স্বামী ও একমাত্র পুত্র সন্তান।
প্রবিত্রাদেবীর তুলির টানে দেবী মৃন্ময়ী চিন্ময়ী রূপে স্থান পাবে হরিশ্চন্দ্রপুরের দুটি পূজামণ্ডপে।
হরিশ্চন্দ্রপুর থানার হরিশ্চন্দ্রপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত হাসপাতালপাড়া এলাকায় বাড়ি
মৃৎশিল্পী প্রবিত্রা দাসের।
তাঁর স্বামী প্রশান্ত দাস।
তিনিও প্রতিমা তৈরীর কারিগর।
বাড়ির সামনে এক চিলতে ফাঁকা জায়গাতেই পলিথিন চাটাই দিয়ে ছাউনি করে দেবী মূর্তি গড়ার কাজ চলছে।
দেবী দুর্গা প্রতিমা বানানোর পাশাপাশি বিশ্বকর্মা , লক্ষী, মনসা দেবদেবীর মূর্তিও গড়ছেন প্রবিত্রা দেবী।
বারো মাস মৃৎশিল্পের কাজকর্মে যুক্ত থেকেই সংসার চালান তিনি ।
মহিলা মৃৎশিল্পী পবিত্রা দাস বলেন, ” শশুর নগেন দাসের হাত ধরেই মূর্তি বানানোর কাজ শিখেছি।
এখন আমার বয়স পঞ্চাশ ছুঁই ছুঁই ।
বিগত ২৫ বছর হয়ে গেল প্রতিমা বানাচ্ছি।
একটা সময় চরম অভাব ছিল ।
মূর্তি তৈরি করে সংসার সামলিয়েছি।
একমাত্র ছেলে, সেও আমার এই কাজে সহযোগিতা করে থাকে।
বাম জমানায় কখনোই কোন সরকারি সুবিধা পাই নি।
তাই এখন মুখ্যমন্ত্রীর কাছে মৃৎশিল্পী হয়ে অনুরোধ, আমাদের বিশেষ সরকারী সুবিধার মধ্যে আনুন ।
তাহলে এই শিল্প বাংলায় অটুট থাকবে”।
হরিশ্চন্দ্রপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান শেফালী দাস জানিয়েছেন,
“বিভিন্ন ক্ষেত্রে মাটি শিল্পীদের সঙ্গে যারা যুক্ত রয়েছেন তাঁদের জন্য বিভিন্ন সরকারি সুবিধার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।
মাটি শিল্পের সঙ্গে কাজ করার ক্ষেত্রে বিভিন্নভাবে ঋণ পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা এবং সরকারি ভাবে
বাড়ি তৈরি প্রকল্পের আওতায় আনার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।
হরিশ্চন্দ্রপুর ১ ব্লকের বিডিও অনির্বাণ বসু জানিয়েছেন, “যাঁরা প্রতিষ্ঠিত ও নামজাদা শিল্পী রয়েছেন, তাঁদের জন্য ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার।
এর পাশাপাশি ছোট-বড় অন্যান্য মৃৎশিল্পীদের জন্য রাজ্য সরকার বিভিন্নভাবে সরকারি সহযোগিতার উদ্যোগ নিচ্ছে”।
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from HomeMore posts in Home »
More from তাজা খবরMore posts in তাজা খবর »
More from পশ্চিমবঙ্গMore posts in পশ্চিমবঙ্গ »

One Comment

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!