Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর ইস্যূতে লন্ডনে ভারতীয় হাই কমিশনে পাকিস্তানিদের হামলা

লন্ডনঃ কাশ্মীর ইস্যূতে ব্রিটিশ পাকিস্তানিদের বিক্ষোভে ফের উত্তপ্ত লন্ডনের রাজপথ।

প্রায় ১০ হাজার পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন।

বিক্ষোভকারীরা সেইসঙ্গে ভারতীয় হাই কমিশনে হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার বিক্ষোভকারীরা ভারতীয় হাই কমিশনে হামলা চালিয়ে জানলার কাঁচ ভেঙ্গে দিয়েছে ।

জানা যায়, একদল ব্রিটিশ কাশ্মীরিদের আয়োজিত ‘কাশ্মীর ফ্রিডম মার্চ’ পার্লামেন্ট স্কয়ার থেকে ডাউনিং স্ট্রিট হয়ে হাই কমিশনের বিল্ডিং-এর দিকে যায়।

মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন কয়েকজন ব্রিটিশ লেবার সাংসদ।

বিক্ষোভকারীদের হাতে ছিল পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও খালিস্তানের পতাকা ও প্ল্যাকার্ড।

মুখে ছিল ‘কাশ্মীরে গোলাগুলি বন্ধ হোক’, ‘কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘের ব্যবস্থা নেওয়ার সময় এসেছে’, ‘কাশ্মীরে যুদ্ধ বন্ধ হোক’, ‘আজাদি’-র স্লোগান।

মিছিল শুরুর আগে ওয়েস্টমিনস্টারে পার্লামেন্ট স্কয়ারের মহাত্মা গান্ধীর মূর্তির হাতে বসিয়ে দেওয়া হয় পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের পতাকা।

এরপর ভারতীয় হাই কমিশনে গিয়ে ডিম, টমেটো, জুতো, পাথর, বোতল, ধোঁয়ার বোমা ছুড়তে থাকেন বিক্ষোভকারীরা।

এতে ভারতীয় হাই কমিশনের বেশ কয়েকটি জানলার কাঁচ ভেঙ্গে গেছে।

সেই ছবি টুইট করে ভারতীয় হাই কমিশন জানায়, আজ লন্ডনে ভারতীয় হাই কমিশনের বাইরে আরও একটা হিংসাত্মক প্রতিবাদ। প্রাঙ্গন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

মেট্রোপলিটান পুলিশ এই ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে।

এছাড়া লন্ডনের মেয়র সাদিক খান, যিনি নিজেও পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত, টুইটে জানিয়েছেন, এই অগ্রহণযোগ্য আচরণের তীব্র নিন্দা করছি।

কাশ্মীর ইস্যূতে নিজে পাকিস্তানী প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সব তরফে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথ দেখা হবার পরেও এই ব্যাপারে পাকিস্তান আমেরিকা সমর্থন যোগাড় করতে পারেনি।

ইউএন সিকিরিয়ূটী কাউন্সিলে কাশ্মীর ইস্যূতে কেবল মাত্র চীন তার সাথে দাড়িয়েছিলো।

এমন কি খোদ সৌদী আরবের কাছ থেকেও ইমরান এই ব্যাপারে কোন মন্তব্য বার করে আনতে পারেন নি।

এর মধ্যে পাকিস্তান আবার বাংলাদেশেরে সাথেও কথা বলেছে।

কাশ্মীর ইস্যূতে পাকিস্তানের প্রদর্শন হয়ে চলেছে

কাশ্মীর ইস্যূতে নিজের দেশেও ইমরান খান একটি কাশ্মীর আওয়ার নামের প্রদর্শন করেছিলেন।

কিন্তু তার প্রতিও জনসমর্থনের অভাব দেখা গেছে।

তবে ব্রিটেনে থাকা পাকিস্তানীরা ইদানিং বেশী আক্রামক হয়ে দাড়িয়েছে।

কিছূ দিন আগে পাকিস্তানের এক মন্ত্রী সেখানে উল্টো পাল্টা মন্তব্য করার জন্য বিরোধের সম্মুখীন হয়েছিলেন।

তবে ভারতীয় হাইকমিশনের ওপর এই হামলাকে ব্রিটেনের পুলিস ভাল চোখে দেখছে না।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  

3 Comments

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!