Press "Enter" to skip to content

টিকটকের ভিডিও বানাতে গিয়ে যূবকের মৃত্যু বন্ধুরা পালায়

  • ভিডিওটি দুটি বন্ধুকে নিয়ে তৈরি করা হয়েছিল

  • শ্বাস বন্ধ হয়ে মারা যাবার পরে বন্ধুরা পালায়

  • সেখান দিয়ে যাবার সময় কিছূ লোক দেখতে পায়

মালদাঃ টিকটকের জন্য ভিডিও বানাতে গিয়ে এক যুবকের মৃত্যুর এক

মর্মস্পর্শী ঘটনা প্রকাশ পেয়েছে। মালদা জেলার পখুরিয়া থানার পীরগঞ্জ

গ্রাম পঞ্চায়েতের পীরগয়া এলাকায় এই ঘটনার পর পুরো এলাকাটিতে

আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। তথ্য মতে, মঙ্গলবার গভীর রাতে সিমেন্টের খুঁটিতে

হাত বেঁধে যুবকের অচেতন অবস্থায় আছে। সেই খবর পেয়ে পখুরিয়া

থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাকে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ

ও হাসপাতালে প্রেরণ করে। হাসপাতালে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা

করেন। নিহত যুবকের পরিবারের পক্ষ থেকে যুবকের দুই বন্ধুর বিরুদ্ধে

থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু

করেছে। এখানে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের দুই আসামি বন্ধু পলাতক

রয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, নিহত যুবকের নাম করিম শেখ (১৮)। সে

পীরগাই এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। তথ্য মতে, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় 3 বন্ধু

বাড়ির সামনে সোশ্যাল মিডিয়া টিকটকের জন্য একটি ভিডিও প্রস্তুত

করছিলেন। করিম শেখকে হাত-পা বেঁধে সিমেন্টের খুঁটিতে বেঁধে রাখা

হয়েছিল। তার মুখে প্লাস্টিক বেঁধে ছিল এবং নাক এবং মুখে কাপড় বেঁধে

রাখা হয়েছিল। একই অবস্থায় তার আরও দুই বন্ধু তার ভিডিও তৈরি

করছিল। এদিকে করিম শেখ অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান। বলা হয়েছে যে

যুবকের এই অবস্থা দেখে তার দুই বন্ধু সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

অন্যদিকে, রাতের বেলা ওই অঞ্চল দিয়ে যাওয়ার সময় কয়েকজন যুবককে

বাঁধা সিমেন্টের খুঁটিতে হাত বেঁধে দেখে পুলিশ ও তাদের পরিবারকে খবর

দেয়। পরিবারের সদস্যরা সেখানে পৌঁছে তাকে আধিডাঙ্গা গ্রামীণ

হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং সেখান থেকে তাকে মালদা মেডিকেল ও

হাসপাতালে রেফার করা হয়। মেডিকেল কলেজে পৌঁছামাত্রই

চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

টিকটকের ভিডিওর কথা সকলে জানতো

নিহতের মামা রবিউল শাইখ জানান যে তার ভাগ্নে তার দুই বন্ধু আবদুল

শেখ বনভ জাকির শেখকে নিয়ে টিকটকের একটি ভিডিও বানাচ্ছিল।

এসময় শ্বাসকষ্টের কারণে তাঁর ভাগ্নির মৃত্যু হয়।তিনি জানান যে তার

ভাগ্নে সিমেন্টের খুঁটিতে বাঁধা ছিল। তিনি ষড়যন্ত্রের আঘাতে তার ভাইপো

তাকে হত্যার অভিযোগ এনেছিলেন। একই সঙ্গে নিহতের বাবা হায়াত

আলী ব্যবসায়ী। তিনি বলেছিলেন যে তাঁর ছেলে পড়াশোনা ছেড়ে গেছে।

তিনি জানিয়েছিলেন যে এর আগেও তিনি মুখ থেকে টিকটকের জন্য একটি

ভিডিও তৈরি করেছিলেন।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from অপরাধMore posts in অপরাধ »
More from আজব খবরMore posts in আজব খবর »
More from তাজা খবরMore posts in তাজা খবর »
More from পশ্চিমবঙ্গMore posts in পশ্চিমবঙ্গ »
More from ভিডিওMore posts in ভিডিও »
More from সাইবারMore posts in সাইবার »

2 Comments

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!