তেলেঙ্গানায় ভোটারদের বয়স দুই হাজার বছর, ব্যাপারটা নিয়ে হইচই

telengana voter card

প্রকাশ মহাজনশেট্টায়ার

বেংগলুরুঃ তেলেঙ্গানায় অনেক ভোটারের বয়স হাজার বছরের ওপরে।

ভারতের নির্বাচন কমিশন তেলাঙ্গানায় আসন্ন বিধানসভা ভোটের আগে তালিকা তৈরি করেছে।

আসন্ন নির্বাচনের আগে সারা দেশে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ চলছে।

নতুন ভোটারদের নাম তালিকাভুক্ত করতে বিভিন্ন জায়গায় ক্যাম্প লাগানো হচ্ছে।

কিন্তু পুরোনো তালিকেতেই গন্ডগোল দেখা দিচ্ছে। কারও নাম ভুল, তো কারও বয়সের গাছ পাথর নেই।

তেলেঙ্গানায় ভোটার তালিকা সামনে আসার পর অনেকেরই মাথায় হাত।

তাঁরা বুঝতে পারছেন না যে তাঁদের বয়সের এই গোলমালের জন্য কে বা কারা দায়ী।

নাম ও বয়স সংশোধন করতে তাঁরা ছুটছেন নির্বাচন দফ্তরে।

আদালতের দারস্থ হতে পারে কংগ্রেস

ভোটারদের যে লিস্ট সম্প্রতি সেখানে প্রকাশিত হয়েছে তাতে ২১ হাজার মানুষের বয়স ১০০ থেকে ২০১৭ বছরের মধ্যে দেখানো হয়েছে।

এই নিয়ে সেখানে বেশ হইচই শুরু হয়েছে।

কংগ্রেসের তরফে এআইসিসি সেক্রেটারি অভিষেক মনু সিংভি সাংবাদিক সম্মেলন করে এই তথ্য সামনে এনেছেন।

একই সঙ্গে কেন্দ্র, রাজ্য ও নির্বাচন কমিশনকে তোপ দেগে সিংভি বলেছেন, ভোটার তালিকায় ৭০ লক্ষ নামে গোলমাল রয়েছে।

এই নিয়ে আগামী দিনে কংগ্রেস সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হতে পারে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

অন্যদিকে বলা হচ্ছে যে ভোটার তালিকায় গোলমালের সুযোগ ভোটে তুলতেই

আগে থেকে সরকার ভেঙে দিয়েছেন টিআরএস প্রধান কে চন্দ্রশেখর রাও।

রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, তেলাঙ্গানার মতো রাজ্যে ৭০ লক্ষ ভোটারের নাম হয় নকল অথবা নামই নেই।

এ ছাড়াও আর কি কি গোলমাল রয়েছে তা বেসরকারি তদন্তেই উঠে আসতে পারে বলে অভিযোগ কংগ্রেসের।

অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানার যৌথ এলাকা খম্মমে ১৭ লক্ষ ভোটারের নাম ও অন্যান্য তথ্যে গোলমাল রয়েছে।

অর্থাৎ দুটি রাজ্যই এই ভোটারদের নিজেদের বলে দাবি করেছে।

তাই যে কোনও ভোটের আগে তালিকা নিয়ে তদন্ত করার দাবি উঠেছে।

অবৈধ নামগুলিকে অবিলম্বে তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার দাবিও জানিয়েছে কংগ্রেস।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর এম শশীধর রেড্ডি ও রবিশঙ্কর জন্ধ্যালা নির্বাচন কমিশনের অফিসে মোর্চা নিয়ে গিয়ে অভিযোগ জানান।

মুখ্য নির্বাচনী অফিসার সব কিছু জানতেন বলেও তিনি দাবি করেছেন।

যার ফলে কমিশনের বিরুদ্ধে তোপ দাগতেও ছাড়েনি কংগ্রেস।দলের নেতারা যে যাই বলুক না কেন,

হয়রান হতে হচ্ছে কিন্তু সেই সব সাধারণ মানুষকেই, যাঁরা নিজেদের মূল্যবান ভোট দিয়ে নিজেদের সরকার গড়ার স্বপ্ন দেখছেন।

যাঁরা এই তালিকা তৈরী করেছেন বা কম্প্য়ূটারে নথিভুক্ত করেছেন ভোটদাতাদের সমস্ত তথ্য, তাঁদের আরও সাবধান হতে হবে।

Please follow and like us:

Author: Bangla R khabar

Loading...