রোবট এবার সামনে এলে আপনার ছবি তৈরি করে দেবে

রোবট এবার সামনে এলে আপনার ছবি তৈরি করে দেবে
Spread the love
  • নভেম্বর মাসে প্রথম বার লোকেদের সামনে আনা হবে

  • মেশিনটাকে মানূষের মতন দেখতে তৈরী করা হচ্ছে

  • সামনে থাকা মানূষের নকল করে হাসাতে পারে

  • মেশিনের ওপরে নকলী চামড়া দিয়ে মানূষ তৈরীর চেষ্টা

প্রতিনিধি

নিউ ডেলিঃ রোবট সামনে দাড়িয়ে থাকা মানূষের চিত্র এঁকে দিতে পারে।

এমনিতেই এই ধরনের মেশিনের ব্যাবহার আজকাল খূব হচ্ছে।

বিশেষ করে, বিপজ্জনক ধরনের কাজে সাহায্য করেছে রোবট মানূষকে সাহায্য করছে।

আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে যারা কাজ করছেন তারা প্রথম এই ধরনের একটি রোবট তৈরি করেছে।

এই মেশিনটি নিজের সামনে আসা মানূষ বা যে কোন আকৃতির হুবহূ চিত্র এঁকে ফেলতে পারে।

আগামী নভেম্বরে লন্ডনে অনুষ্ঠিত একটি বিজ্ঞান প্রদর্শনীতে জনসাধারণের কাছে এই রোবটটি প্রথম বার আনা হবে।

তার আগে মে মাসে, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে তার বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা করা হবে।

রোবটটির নাম আই ডা, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স নিয়ে যারা কাজ করেন তারা এই রোবটের নাম বিখ্যাত ব্রিটিশ গণিতবিদ এড লাভেলাসের নামকরণ করেন, যিনি কম্পিউটার প্রচারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।

এই রোবট এখন চূড়ান্ত করা হচ্ছে।  রোবটটিতে একটি নকল চামড়ার পরত চাপান হচ্ছে যাতে এটিকে দেখতে মানূষের মতন লাগে। আইডন মিলার, এই কাজের সাথে এবং তিনি যুক্ত ব্রিটিশ গ্যালারিটির মালিক।

মিলার বিশ্বাস করেন যে এই রোবট ভবিষ্যতে পেইন্টিং করতে পারবে।

মজার বিষয় হল যে এই রোবটকে তৈরী করার কাজে সব খ্যাতিপ্রাপ্ত মানূষের চেহারা বা চোখের রংগ ব্যাবহার করা হচ্ছে।

প্রাথমিক পরীক্ষায়, এটি পাওয়া গেছে যে এই রোবটটির আচরণটি মানুষের কাছে ব্যাপকভাবে তৈরি করা হয়েছে। অর্থাৎ, তার চোখ দিয়ে তাকিয়ে, তিনি নিজের হাত দিয়ে সামনের ছবিটি তৈরি করেন।

এই রোবট কে মানূষের মতন দেখতে তৈরী করা হচ্ছে

এই রোবট এর কর্ম ছাড়া মানুষের মত।

বিজ্ঞানীরা এই ফর্ম সম্পন্ন করার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছেন। রোবট নির্মাণে জড়িত মানুষেদের মতে, ক্যামেরাগুলি মেশিনের চোখগুলির পিছনে বসান হয়েছে।

এই ক্যামেরার সাহায্যে রোবট দেখতে পায় এবং কাজ করে।

তাকে সামনে দাড়িয়ে থাকা মানূষের পিছন পিছুন একটি রুমে ঘূরে বেড়াতেও পারে।

তবে কেউ যদি তার খুব কাছে চলে যায়  তো চোখ মিটমিট করে রোবট নিজেই পিছূ সরে যায়।

যাতে মনে হয় যে এত কাছে আসা তার পছন্দ নয়।

তার সামনে দাড়িয়ে হাসলে মেশিনটিও হাসা শুরু করে দেয়। তাতে প্রচুর মানূষ মজা পায়।

এটিকে তৈরির সাথে জড়িত ব্যক্তিরা বিশ্বাস করে যে রোবটগুলি তাদের চিত্রকলার পাশাপাশি যেকোনো প্রদর্শনীতে লোকেদের আকৃষ্ট করতে সফল হবে।

কারন এটি মানূষের নকল করতে পারে এবং এটিকে দেখতে ঠিক কোন মানূষের মত করে তোলা হচ্ছে।

Loading...