My title page contents Press "Enter" to skip to content

দূমকার রানেশ্বর থানা এলাকায় নক্সালদের গুলিতে এক জওয়ান নিহত




  • এনকাউন্টারে আহত হয়েছেন আরও চার জন পুলিস

দুমকাঃ দূমকার রানেশ্বর থানা এলাকায় আজ সকালে এক পুলিস জওয়ান নিহত হয়েছে।

নক্সালদের সাথে পুলিসের গুলি চালনার মধ্যে এই সৈনিক মারা যায়। ঘটনাটি কাটালিয়া গ্রামের কাছে।

পুলিসের কাছে খবর ছিলো যে সেই এলাকায় নক্সাল দল ঘূরে বেড়াচ্ছে।

এই খবর পেয়ে সেখানে পুলিস দল গেলেই নক্সালরা গুলি চালান শুরু করে।

তাতে এইজন মারা যান এবং চার জন আহত হয়েছেন।

দুমকার পুলিশ সুপার রমেশ জানিয়েছেন যে পাল্টা গুলি চালনায় চার জন নক্সালও মারা গেছে।

কিন্তু তাদের দেহ উদ্ধার করা হয়ে ওঠেনি।

ঘটনাটি যেখানে ঘটেছে সেটি দূমকার রানেশ্বর এবং শিকারিপাড়া স্টেশানের কাছে।

দূমকার পুলিসের কাছে খবর এসেছিলো যে সেই এলাকায় গত তিন চার দিন ধরে নক্সালরা জমা হয়ে আছে।

হয়তো তারা কোন বড় হামলা করতে যাচ্ছে। এই খবরের পরে সেখানে সার্চ অপারেশন চালান হয়।

পুলিস সেখানে পৌঁচোলেই গুলি চলতে থাকে। পুলিশও জবাবী গুলি চালিয়েছে, যাতে চার থেকে পাঁচজন নকশাল মারা গেছে বলে পুলিসের দাবি।
ঘটনায় আহত জওয়ানদের ভিতরে দুই জনকে রাঁচী আনা হয়েছে।

সেই এলাকা সিল করে পুলিস তল্লাশী অভিযান চালাচ্ছে।

মারা যাওয়া জওয়ান নীরজ ক্ষেত্রী অসমের মূলবাসী ছিলেন।

দূমকার ঘটনায় দুই আহত স্থানীয় হাসপাতালে আছে




আহত আহত করণ কুমার, অনিল কুমার এবং সতীশ গুজ্জরকে দুমকা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে

যখন গুরুতর আহত পুলিশ সদস্য রাজেশ এই সকালে ভাল চিকিৎসার জন্য রাইকে হেলিকপ্টার থেকে রাঁচি নিয়ে আসা হয়েছে।

শহীদ সৈনিকের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী রঘবুর দাস।

তিনি বলেন, এই দুঃখের মুহূর্তে পুরো ঝাড়খন্ড তার পরিবারের সাথে।

মুখ্যমন্ত্রী দাস বলেছেন যে, রাষ্ট্রের বিদ্রোহ তার শেষ শ্বাস গণনা করছে।

সরকার তাদের শেষ পর্যন্ত প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।




Spread the love
More from সন্ত্রাসMore posts in সন্ত্রাস »

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Mission News Theme by Compete Themes.