নাসার বৈজ্ঞানিকরা খূঁজে পেলেন কয়েকটি বলয় যূক্ত অদ্ভূত ম্রিয়মান তারা

নাসার বৈজ্ঞানিকরা খূঁজে পেলেন কয়েকটি বলয় যূক্ত অদ্ভূত ম্রিয়মান তারা
Spread the love
  • তারার চার পাশে ধূলো এবং আবর্জনার বলয়

  • পৃথিবী থেকে 145 আলোক বছর দূরে

  • তারা টির তাপমাত্রা প্রায় 5800 ডিগ্রী

  • কেন এই ধূলো, সেটা জানতে চান বৈজ্ঞানিকরা

প্রতিনিধি

নয়াদিল্লী: নাসার বিজ্ঞানীরা একটি ক্ষুদে তারা খূঁজে পেয়েছেন। যেমন যেমন এস্ট্রোসাইন্সের কাজ আগে যাচ্ছে, আমরা প্রতিদিন নতূন কিছূ জানতে পারছি। এই বার পাওয়া গেছে ম্রিয়মান হয়ে আসা একটি তারা।

তবে তারা নয় তার চার পাশে থাকা বলয় বৈজ্ঞানিকদের কৌতুহল জাগিয়েছে।

বিজ্ঞানীরা এই তারার নাম রেখেথেন জে0207। তার বয়স প্রায় কয়েক কোটি বছর।

আসলে বৈজ্ঞানিকরা তারা আয়ূ জানতে তার তাপমাত্রার ওপর ভরসা করেন।

এই তারা ভিতরে তাপমাত্রা এখন 5800 ডিগ্রি, যা সাধারণ তারা থেকে খূব কম।

তাই ধরা হচ্ছে যে এই তারাটি ক্রমশঃ মরে যাচ্ছে।

টেলিস্কোপ থেকে যা জানা গেছে তার হিসাবে এই তারা পৃথিবী থেকে প্রায় 145 আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত।

বিজ্ঞানীদের মনোযোগ এই তারের দিকে শুধু এই কারণেই নয়।

আসল কারন তার চার পাশে থাকা বলয়ের জন্য।

বিজ্ঞানীরা আন্দাজ করছেন যে আসলে এই বলয় ধূলো এবং সৌর জগতের আবর্জনা থেকে সৃষ্টি হয়েছে।

এই সব মিলে মিশে অনেক গুলি বলয়ের সৃষ্টি করেছে। সব কটাই এই তারার চার পাশে ঘূরে চলেছে।

এই তারকা অনুসন্ধানকারীকে একজন সাধারণ নাগরিক, যিনি নিজের শখের জন্য নাসার সাথে কাজ করেন।

বিজ্ঞানী এই ফলাফলেও পৌঁছেছে যে তারার বয়স খুব বেশি হবে কারণ তার চারপাশে ঘোরাঘুরি করা ধুলোকণা এবং সৌর আবর্জনার বয়সও কোটি কোটি বছর।

নাসার প্ল্যানেট 9 এর প্রজেক্টে সাথে যূক্ত বাটিমোরের স্পেস টেলিস্কোপ ইনস্টিটিউট এর বিজ্ঞানী জন ডেবস এই মন্তব্য করেছেন। প্রাথমিক অনুমান অনুযায়ী এই ধুলকনাগুলির বয়স সম্ভবত সম্ভবত এক কোটি বছর।

তাই এটা বিশ্বাস করা যায় যে তার চেয়ে বেশি বয়স হবে। এই নতুন তথ্যের কারণে খগোল বিজ্ঞানীরা সৌর মন্ডলীর উপস্থিতিতে তারের বয়স গণনা করতে নতুন তথ্য পেয়েছে।

টেলিস্কোপ থেকে দেখার জন্য এটা জানা যায় যে এই তারার এক তৃতীয়াংশ ঘিরে রেখেছে এই বলয়।

মহাকাশের নতূন টেলিস্কোপ জেম্স ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপ কাজ করা শুরু করলে এই ব্যাপারে আর কিছূ জানা যাবে।

Loading...