Press "Enter" to skip to content

মাঝ নদীতে দুই লঞ্চের রেষারেষিতে বিরাট দুর্ঘটনা ঘটতে পারতো

  • উভয় লঞ্চের অনুমতি তাত্ক্ষণিক প্রভাবে স্থগিত হয়েছে

  • দুই লঞ্চের চার চালকদের শো কজ করা হয়েছে

  • প্রচুর লোক এই ঘটনা দেখতে পেয়েছে

  • ভিডিও ভাইরাল হলে প্রশাসন সতর্ক

সুভাষ দাস

ঢাকা: মাঝ নদীতে দুই লঞ্চের রেষারেষির খেলা যে কোন সময়ে বড় দুর্ঘটনা ঘটাতে পারতো।

ঘটনাটি ঢাকার সদর ঘাটের কাছে ঘটেছে। এক্সট্রিম লঞ্চ লাভার নামে একটি সংগঠনের কেউ

তার ভিডিও পোস্ট করার পরেই বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ দুই লঞ্চের পারমিট স্থগিত

করেছে।

ভিডিওতে দেখুন কী ঘটেছিলো

একই সাথে এই দুই লঞ্চের দুজন করে চালক মানে চার জন চালকদের শো কজ করা হয়েছে।

যারা ঘটনাটি দেখেছেন তাঁদের হিসেবে এই ধরনের বিপজ্জনক খেলায় দুই লঞ্চের কয়েক শত

যাত্রী ডুবে যেতে পারতেন।

কয়েক হাজার মানুষ মাঝ নদীতে এই পুরো ঘটনাটি দেখতে পেয়েছিল এবং সেই সাথে এক্সট্রিম

লঞ্চ লাভার এই ঘটনার ভিডিও রেকর্ড করেছে। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার

পরে, তাড়াহুড়োয়, বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ যাত্রীবাহী এই দুই লঞ্চের পারমিট বাতিল

করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুড়িগঙ্গায়। মাঝ নদীতে এই ঘটনাকে আশে পাশের প্রচুর লোক

দেখেছে। এই দুই লঞ্চের মধ্যে একটি হল এমভি ইয়াদ এবং অন্যটির নাম শ্রীনগরের গ্লোরি ২।

এর মধ্যে এমভি ইয়াদ পটুয়াখালী বালিয়াটলির মধ্যে যাত্রী বহনকারী নৌকো। অন্যদিকে, গ্লোরি

অফ শ্রীনগর 2 ভোলার ঘোষেরহাট রুটে ঢাকা থেকে যাত্রী বহন করে। ঢাকার নিকট

সদরঘাটের কাছে দুজনের মধ্যে দীর্ঘক্ষণ এই রেষারেষি মাঝ নদীতে চলছিল। আসলে দুই লঞ্চের

নিজের নিজের পথে যাবার মাঝে হঠাৎ এই রেষারেষি শুরু হয়। কিছু লোকের হিসেবে এটা

মাঝে মাঝেই হয়। কেননা লঞ্চের চালকরা একে অপরকে পিছিয়ে দিয়ে এগিয়ে যাবার চেষ্টা

করে। মাঝ নদীতে বেশ কিছুক্ষণ এই অবস্থ্যা চলতে দেখে বেশ কিছু যাত্রী সন্ত্রস্ত হয়ে চিৎকার

করেছিলেন।

মাঝ নদীতে বেশ কিছূ ক্ষণ চলেছে এই রেষারেষি

এমনকি নদীর কিনারায় দাড়িয়ে থাকা লোকেরাও চেঁচামেচি শুনে এই ঘটনা বুঝতে পারে। একে

অপরকে ঘষা দেওয়ার সময় এগিয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতা দীর্ঘদিন ধরে চলেছিল। ভাগ্যক্রমে,

কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি এবং উভয় নৌকো নিরাপদে তাদের নিজ নিজ ঘাটে পৌঁছেছিল। তবে এই

ঘটনা সম্পর্কে জানার পরেই বাংলাদেশ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ পারমিট স্থগিত করে দুই লঞ্চের

চার চালকের কাছ থেকে জবাব চেয়েছে। উভয় লঞ্চের চালকদের শো কজ নোটিশ জারি করে

এই ধরণের দায়িত্বজ্ঞানহীন কার্যকলাপের কারণে কেন তাদের লাইসেন্স বাতিল করা হবে না তা

ব্যাখ্যা করতে বলা হয়েছে। এই চালকদের আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে তাদের জবাব দিতে হবে


 

Spread the love
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
More from HomeMore posts in Home »
More from অপরাধMore posts in অপরাধ »
More from তাজা খবরMore posts in তাজা খবর »
More from বাংলাদেশMore posts in বাংলাদেশ »
More from ভিডিওMore posts in ভিডিও »
More from যাত্রা এবং ভ্রমণMore posts in যাত্রা এবং ভ্রমণ »

Be First to Comment

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!