My title page contents Press "Enter" to skip to content

মানুষের মস্তিষ্ক ভাল রাখার জন্য চাই মস্তিষ্কের জন্য পুষ্টিকর খাবার




  • মস্তিষ্কে বিশ্বব্যাপী প্রকাশিত বৈজ্ঞানিক গবেষণার নতুন সন্ধান

  • অধিকাংশ মানুষ তাদের মস্তিষ্কের ক্ষুধা বুঝতে না

  • ক্ষুধার্ত মস্তিষ্ক শরীরকে অলস করে রাখে

  • স্বাভাবিকভাবেই পাওয়া যায় তার খাবার

  • শরীরও মস্তিষ্ক থেকে শক্তি পায়


প্রতিনিধি

নয়াদিল্লি: মানুষের মস্তিষ্ক সব সময় ভাল খাবার চায়।

আমরা আমাদের পেটের ক্ষুধা কারণে বেশিরভাগ সময় মস্তিষ্কের ক্ষুধা চিনতে পারি না।

আসলে ব্রেনের ভাল কাজ হলে তারও পুষ্টির দরকার পড়ে।

তাই মানূষের মাথা তখন নিজের জন্য ভাল খাবার খোঁজে।

যখন মস্তিষ্ক ভাল খাবার পায় না তখন এটি বাধ্যতামূলক হয়ে যায়।

সেই ক্ষেত্রে মানব মস্তিষ্কের কাজের সাথে সাথে শরীরও অলস হয়ে যায়।


এই খবর পড়তে পারেন


এই মানূষের মাথার ভিতরের ব্যাপার বোঝার জন্য সারা বিশ্বে হাজার হাজার বিজ্ঞানী দিন-রাত কাজ করছেন।

এখন এই ক্রম, মানুষের মস্তিষ্ক  সম্পর্কে ক্ষুধা এবং এর জন্য আরও ভাল খাদ্য সনাক্ত করা হয়েছে।

সাধারণত, লোকেরা বর্তমান যূগে তাদের স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য বেশি মনোযোগ দিচ্ছে।

উন্নত দেশে মানুষ এবং শিশু স্থূলতা নিয়ে ঝামেলায় আছে।

তাই মানূষের শরীর কি ভাবে ভাল থাকবে তার জন্য খাবার দাবারের ওপর নজর রাখা হয়।

এমনকি স্থূলতা এড়ানোর জন্য, বিশেষ ধরণের খাদ্য শৃঙ্খলাও উল্লেখ করা হচ্ছে।

অনুমান অনুযায়ী, স্থূলতা হ্রাসের ব্যবসাও বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে আছে এবং এটি খুব ভাল ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

কিন্তু বৈজ্ঞানিক গবেষণায় জানান হয়েছে যে শুধুমাত্র শরীর ভাল রাখলেই কাজ হবে না।

এর জন্য মস্তিষ্ক ভাল থাকা উচিত।

এই মানসিক স্বাস্থ্যের অভাবের কারণে শরীরের সুস্থ হওয়ার পরেও অনেক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

তবে, মস্তিষ্ক নিজে থেকে কিছূ খায় না।

সে নিজের প্রয়োজনীয় খাবার পেটে মাধ্যমে গ্রহণ করে।

প্রকৃতপক্ষে, পেট ভেতরে খাদ্যের বিভাজনকে মস্তিষ্কে খাদ্য হিসাবে পৌঁছে দেওয়ার ফলে

সৃষ্ট শক্তির একটি অত্যাধুনিক রূপ। এটি শারীরিক শক্তি বিশুদ্ধতম ফর্ম।

মানুষের মস্তিষ্ক সঠিকভাবে কাজ করার শক্তি প্রয়োজ

গবেষক বিজ্ঞানীরা এমনকি এই জন্য উপকারী খাদ্য একটি বিশেষ তালিকা প্রস্তুত করেছেন।

সাধারণ সবজি ছাড়াও, ফল এবং বাদাম-ভিত্তিক খাদ্য ছাড়াও মাংসের কেঁদে মাছ ও ডিম অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

এই পর্বতে, মস্তিষ্কের জন্য ভাল ডোজ বিভাগেও দই এবং কফি রাখা হয়েছে।

গবেষকদের মতে, শস্য মস্তিষ্কে আরও শক্তি দেয়।

এগুলির মধ্যে বেশিরভাগই শরীরের জন্য উপকারী এবং শরীরের ভিতর থেকে প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে।

শরীর এবং মন উভয় কোষ একই শক্তি প্রদান করতে সহায়ক যে কিছু খাবার আছে।

ক্লিভল্যান্ড ক্লিনিক ওয়েলসেস ইনস্টিটিউটের ক্রিশ্চিন কির্ক প্যাট্রিক এই গবেষণার বিষয়ে

আরও ভালভাবে বুঝতে পেরেছেন যে, এই সমস্ত খাদ্য বিভাগগুলিতে প্রাপ্ত পুষ্টির উপাদানের মাত্রা গণনা করা হয়।

প্রকৃতিতে বিদ্যমান উপাদানগুলির ভিত্তিতে প্রাকৃতিক রঙও সরবরাহ করেছে।

ডাঃ মিচেল গ্রেগর বলেছেন যে ফলের রঙ তাদের মধ্যে বিদ্যমান প্রাকৃতিক উপাদানগুলির একটি প্রাকৃতিক পরিচয়।

এই ফল শরীরে ভিতরে কি কি প্রতিক্রিয়া করতে পারে, সেটা জানা যায়।

অতএব, ভাল খাদ্য শৃঙ্খলে, বিজ্ঞানীরা পৃথিবীতে প্রায় সমস্ত প্রজাতির খাদ্য অন্তর্ভুক্ত করেছেন,

যা সাধারণভাবে রঙের বৈচিত্র্য রয়েছে।

প্রতিটি খাবারের নিজস্ব গুরুত্ব আছে




এই ধরনের সব ধরনের নিজস্ব ভূমিকা আছে।

মানুষের মস্তিষ্ক তার শক্তি যেমন খাদ্য জন্য বিভিন্ন উপাদান প্রয়োজন।

এই কারণে, এই খাদ্য আইটেম প্রস্তুত করা হয়েছে।

সাধারণত এই প্রজাতির অনেকগুলি ফল এবং সবজি রয়েছে, তবে এটি স্বাভাবিকভাবেই মানুষের কাছে পাওয়া যায়।

এর একটি পরিণতি হল স্বাভাবিক ধরনের খাবারে তাদের বৈশিষ্ট্যগুলি সনাক্ত করার মাধ্যমে, মানুষ কম খরচে আরও ভাল খাদ্য তৈরি করতে পারে।

সুষম খাদ্যের এই ধরনের সঙ্গে, তাদের মস্তিষ্ক সমান শক্তি পায়।

এই ভাবে মানূষের শরীর এবং মস্তিষ্ক সঠিক থাকে।

মাথা ঠিক মতন কাজ না করলে মানূষ সঠিক ভাবে সিদ্ধান্ত নিতে পারে না

এবং কখনও কখনও তার এই অভাবের কারণে শারীরিকভাবেও কাজ করতে পারে না।


বিজ্ঞানের কিছূ ভাল খবর এখানে পড়ূন



Spread the love

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.