My title page contents Press "Enter" to skip to content

গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীর ওপর চার ৪০০০ কোটি টাকার চিনা বাদাম কেলেঙ্কারীর অভিযোগ




গান্ধীনগর/রাজকোটঃ গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপাণীর ওপর কংগ্রেস আবার তীর ছুঁড়লো।

তারা আরও একবার ন্যূনতম সমর্থন মূল্য  প্রকল্পের অন্তর্গত কেনা চিনা বাদামের বস্তা থেকে

মাটি মেশানো চিনা বাদাম পাওয়ার ঘটনা নিয়ে অভিযোগ অনুযোগ শুরু করেছে।

এর মাঝে বিধানসভায় বিপক্ষ নেতা সহ আমরেলি থেকে কংগ্রেসের বিধায়ক পরেশ ধানাণী

বলেছেন যে, এতে ৪০০০ কোটি থেকেও বেশি অঙ্কের কেলেঙ্কারী হয়েছে

এবং এর তার মুখ্যমন্ত্রীর  সাথে জড়িত আছে।

অন্যদিকে চিনা বাদাম ক্রেতা কেন্দ্র সরকারী এজেন্সি নাফেড এর সহ-সভাপতি দিলীপ সংঘানী

ধনাণীর এই অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলেছেন।

ধনাণীকে তিনি  মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ক্ষমা চাইতেও বলেন।

তিনি বলেন যে, গতকাল গুজরাতের গান্ধীধাম এর গোদাম থেকে চিনা বাদাম ভর্তি যেই বস্তাগুলো পাওয়া গেছে,

সেগুলো ২০১৭ সালে কেনা হয়েছিল।

এই রকম একটি ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর এর উচ্চ স্তরে তদন্ত চলছে।

তিনি বলেন যে কংগ্রেসের কাছে বর্তমানে জনতার সাথে সম্পর্কিত কোন ইস্যু না থাকায়

তারা এইরকম ভিত্তিহীন মনগড়া সমস্যা নিয়ে এসে জনতাকে দিগ্ভ্রমিত করার চেষ্টা করছে।

শ্রী ধনাণী বলেন যে, কংগ্রেস আগে থেকেই চিনা বাদাম কেনার তদন্ত হাইকোর্টের বর্তমান বিচারককে

দিয়ে করাবার দাবি করে আসছিল, কিন্তু সরকার জেনেশুনে সেটা করাচ্ছে না।

যদি ঠিক করে এর তদন্ত করা হয় তাহলে শুধু বড় বড় মাছই জালে ফাঁসবে না,

উপরন্তু এর তার গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছাবে।

তিনি আরও একবার এই ঘটনার তদন্ত হাইকোর্টের সিটিং জাজকে দিয়ে করাবার দাবি রাখেন।

অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপাণী বলেছেন যে,

চিনা বাদাম ঠিকঠাক করে রাখার দায়িত্ব নাফেডের।

তা সত্ত্বেও গান্ধীধামে গতকাল যে ঘটনা ঘটেছে, সেই ব্যাপারে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

নাফেড অভিযোগ দায়ের করার পর সরকার দোষীদের বিরুদ্ধে কঠিন পদক্ষেপ নেবে।

এই মামলায় এর আগেও অভিযোগ করা হয়েছিল এবং জানা গেছে যে

সত্যি সত্যি খারাপ চিনা বাদাম কেনা হয়েছিল।

কিন্তু তখনও সরকার এই মামলার তদন্তের আদেশ দেয় নি।




Spread the love

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Mission News Theme by Compete Themes.