Press "Enter" to skip to content

হাসপাতালের বাইরে গাড়িতে রাখা লাশ ছিড়ে খাচ্ছে কুকুর

  • বিহারের সুশাসন সরকারের আসল অবস্থা

  • সেখানে থাকা পুলিশ কর্মিরা নীরব দর্শক ছিলেন

  • ভাগলপুরের বিধায়ক অজিত শর্মা প্রতিবাদ জানিয়েছেন

দীপক নওরঙ্গি

ভাগলপুর: হাসপাতালের বাইরে গাড়িতে একটি লাশ রাখা হয়েছিল। তবে এই লাশের কী

হয়েছিল তা বিহারের সুশাসন ব্যবস্থার প্রকৃত অবস্থাটি জানাতে যথেষ্ট। এই ঘটনা সম্পর্কে তথ্য

পাওয়ার পরে স্থানীয় বিধায়ক অজিত শর্মা এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

কী হয়েছে দেখুন ভিডিওতে

আসলে, সেখানে যা ঘটেছিল তা বিহারের ব্যবস্থা এবং পুরো ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন উত্থাপন করেছে।

ভিডিও এবং ছবির চিত্রটি অন্য কিছু বলছে। বিহারে এমন দৃশ্য দেখার কথা কেউ কল্পনাও

করেনি। পুরো ব্যবস্থায় বিধায়ক অজিত শর্মা দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন।এই বিধায়ক বলেছেন

যে শরীরটি কারওই হোক, তবে কুকুর এটিকে আঁচড়াচ্ছে। তিনি বলেছিলেন যে মৃতদেহ যে

কারও হতে পারে। এটি কোনও বিধায়ক বা মন্ত্রীর দেহ হতে পারে। গাড়িতে লাশ আছে আর

পুলিসের সামনে সেই লাশ কে কুকুরের দল ছিড়ে খাচ্ছে, বিহারে এর চেযে আর কী খারাপ হবে।

বিধায়ক পুরো সরকারী ব্যবস্থা ও ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। এই ঘটনা ভাগলপুরের মায়াগঞ্জ

হাসপাতালের। সেখানে বাইরে কুকুরগুলি একটি অটোতে রাখা মৃতদেহটি কামড়ে খেয়েছে। ।

এসময় কোনও সুরক্ষা কর্মী তাকে অপসারণ করতে যাননি।

হাসপাতালের বাইরে রাখা লাশ হনুমান ঘাট থেকে এসেছিল

জানা যায় যে সোমবার রাত ১১ টার দিকে হনুমান ঘাটের সামনে থেকে দুজনের লাশ উদ্ধার

করা হয়, যেটিকে ভাগলপুর জওহরলাল নেহেরু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রাখা হয়েছে,

সেখানে থেকে তাদের ময়না তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হবে। পোস্টমর্টম করার জন্য লাশটিকে

গাড়িতে রাখা হয়েছিলো। আসলে করোনায় মারা গেছে কিনা, এই সন্দেহে কেউ সেটাতে হাত

লাগায় নি। হাসপাতালের কর্মী এবং পুলিস থাকা সত্তেও কেউ কুকুরদের তাড়াতে এগিয়ে যায়

নি। অন্যদিকে, কিছু লোক বিশ্বাস করেন যে লাশ সনাক্তকরণের অভাব এবং করোনার প্রতি

অজানা আশঙ্কার কারণে পুলিশকর্মীরা লাশের নিকটবর্তী হওয়া সম্ভব বলে বিবেচনা করেননি।


 

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  

Be First to Comment

Leave a Reply

Mission News Theme by Compete Themes.
error: Content is protected !!