আলিপুরদুয়ারঃ মৃত চা বাগানের শ্রমিকদের সই জাল করে তাদের

ব্যাংক একাউন্ট থেকে প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা তছরুপের অভিযোগে এক ব্যাঙ্ক

কর্মী সহ মোট চারজনকে গ্ৰেপ্তার করল কালচিনি থানার পুলিশ। গত 20

ডিসেম্বর হ্যাামিলণ্টণগঞ্জ স্টেট ব্যাোঙ্ক অফ ইণ্ডিয়ার শাখা ম্যানেজার এই

বিষয়ে  কালচিনি থানায় অভিযোগ করে এবং এই অভিযোগের ভিত্তিতে

স্টেট ব্যা্ঙ্ক হ্যাযমিলণ্টণগঞ্জ শাখার ক্যাশিয়ার ঘনশ্যাম গুরুঙ ও তার

সাথে যুক্ত তিন জন দালাল শম্ভু চৌধুরী, সমীর মির্ধা, রতন মিঞ্জ কে

গ্ৰেপ্তার করে পুলিশ ধৃতদের আজ আলিপুরদুয়ার কোর্টে পাঠানো হয়েছে।

ঘনশ্যা্ম গুরুঙ গত 31 ডিসেম্বর অবসর নিয়েছে চাকরি থেকে। এই

বিষয়ে উল্লেখ্য চা বাগানের সহজ সরল শ্রমিকদের টাকা ব্যাংক

আ্যকাউণ্ট থেকে সই জাল করে আত্মসাৎ করার একটা চক্র ডুয়ার্সের

বিভিন্ন চা বাগানে সক্রিয়। এই এলাকার চা বাগানের এমনিতেই অনেক

রকমের ঝামেলা আগে থেকেই চলে আসছে। চা বাগান গুলিতে মজূরী

ঠিকমতন না পাবার কারণে ক্ষেপে আছে শ্রমিকরা। এদের মধ্যে অনেক

লোক সূদে টাকা নিয়ে ফেরত করতে না পারায় প্রায় দিন এলাকায় লড়াই

ঝগড়া হচ্ছে।

মৃত চা বাগানের শ্রমিক টাকা তছরুপ একটি চক্র

এমনকি মৃত চা শ্রমিকদের আ্যকাউণ্ট থেকে তারা টাকা বের করছে।

অভিযান চালিয়ে এই চক্রকে গ্ৰেপ্তার করল পুলিশ। শ্রমিকদের টাকা

আত্মস্মাতের এমন একটি চক্রের সাথে ব্যা ঙ্ক কর্মীর যোগসাজসের ঘটনা

প্রকাশ্যে চলে আসায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কালচিনি ব্লকের চা

বলয়ে। এই বিষয়ে কালচিনি থানার ওসি অভিষেক ভট্টাচার্য জানান যে

শ্রমিকদের ব্যাঙ্ক আ্যাকাউণ্ট থেকে টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ

ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানায়।এরপরেই ঘটনায় জড়িত চারজন গ্ৰেপ্তার হয়েছে।

এর মধ্যেম একজন ব্যাঙ্ক কর্মীও যুক্ত ।যদিও ওই ব্যা।ঙ্ক কর্মী গত ৩১

ডিসেম্বর অবসর নিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পুরো ঘটনার তদন্ত করছে

পুলিশ। প্রারম্ভিক তদন্তে এটা বোঝা যাচ্ছে যে এই কাজ কোন একজন লোক

একলা করতে পারে না। তাই মৃত চা শ্রমিকদের টাকা তছরুপের ঘটনায়

আর কারা জড়িত আছে, সেটা জানতে চাইছে পুলিস। যারা ধরা পড়েছে

তাদের কাছ থেকে জিজ্ঞাসাবাদের অনেক নতূন তথ্য পাওয়া যেতে

পারে বলে আন্দাজ করছে পুলিস


 

Spread the love

2 thoughts on “মৃত চা বাগানের শ্রমিকদের ৩০ লক্ষ টাকা তছরুপের অভিযোগে চারজন গ্ৰেপ্তার

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.