ইরাকে ২০১৪ সালে নিখোঁজ ভারতীয়দের দেহাবশেষ দেশে ফিরল

নিখোঁজ
নযা দিল্লি (এজেন্সী) – ইরাকে ২০১৪ সালে নিখোঁজ হযে যাওযা ভারতী ঊনচল্লিশ জনের মধ্যে আটত্রিশ জনের দেহাবশেষ ফিরল দেশে| আজ সোমবার পাঞ্জাবের অমৃতসর আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে. বিশেষ বিমানে করে ইরাকে নিহত আটত্রিশ জনের দেহাবশেষ নিযে আসা হয়| ভারতীয় সময় দুপুর আড়াইটে নাগাদ বিমানটি ভারতে অবতরণ করে|
বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন নিহতদের আত্মীয়স্বজনরা|
প্রসঙ্গত বলা যেতে পারে দেহাবশেষ ফিরিযে আনতে গতকালই বাগদাদের উদ্দেশ্যে রওনা দিযে ছিলেন বিদেশ প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিংহ এবং দেহাবশেষসহ একই বিমানে ফেরেন তিনি|
অমৃতসরে পৌঁছেই সাংবাদিকদের তিনি জানান গত চার বছর আগে ইরাকে আইএস হামলায় মৃতদের একজনের ডিএনএ না মেলায়, আটত্রিশ জনের দেহ আজ ভারতে ফিরেছে|
এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সমস্ত ধরনের সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াই চলবে|
আইএসআইএস অত্যন্ত নির্মম জঙ্গি সংগঠন, এই ভারতীয় নাগরিকরা তাদের শিকার হয়েছেন|
এর পরই কফিন বন্দী দেহগুলি মিলিটারি স্যালুট করে শ্রদ্ধা জানান প্রাক্তন সেনা প্রধান ভি কে সিংহ|

নিখোঁজ একজনের মৃতদেহ আনা হয় নি

উল্লেখ করা যেতে পারে দেশে ফিরে আসা আটত্রিশটি দেহের মধ্যে রয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দুই বাসিন্দা নদীয়ার চাপড়া থানার সমর টিকাদার ও তেহট্টের ইলশেমারি গ্রামের বাসিন্দা খোকন শিকদার|
ইরাকে আইএস হামলায় নিহত ভারতীয়দের দেহ নিযে প্রথমে অমৃতসর পৌঁছয় বিমান|
নিহতদের মধ্যে সাতাশ জন পঞ্জাবের ও চার জন হিমাচল প্রদেশের বাসিন্দা|
এরপর সন্ধেয় কলকাতায় পৌঁছয় বিমান| সেখানে রাজ্যের দুই বাসিন্দার দেহ নামিযে বিমান রওনা দেয় পাটনার উদ্দেশে|
চার বছর আগে ইরাকের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মসুল থেকে নিখোঁজ হযে যান চল্লিশ জন ভারতীয়|
একজন কোনওক্রমে ফিরে আসেন|
তিনি বারবার দাবি করেন, তাঁর চোখের সামনেই বাকি ঊনচল্লিশ জনকে ঠান্ডা মাথায় খুন করেছে আইএস|
অবশেষে গত মাসে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ সংসদে দাঁড়িযে স্বীকার করে নেন, গণকবর থেকে দেহাবশেষ উদ্ধার হয়্ছে তাঁদের|
य़দিও একজনের ডিএনএ“র মিল পুরোপুরি না পাওযায় তাঁর দেহ এবার ফিরিযে আনা সম্ভব হল না|
Please follow and like us:
Loading...