নাগরিক বিলের অকালমৃত্যুতে স্বস্থিতে উত্তর পূর্বের বিজেপি

নাগরিক বিলের অকালমৃত্যুতে স্বস্থিতে উত্তর পূর্বের বিজেপি
Spread the love

ভূপেন গোস্বামী

গুয়াহাটি: নাগরিক বিল সংসদের ঝামেলায় এখন মৃত।

সময় মতন বিল লোকসভা বা রাজ্যসভায় প্রস্তুত না হবার কারণে এই বিল আর কার্যকারী থাকবে না।

এই সুবাদে উত্তর পুর্বের রাজ্যে বিজেপি একটূ চিন্তামুক্ত হতে পারবে।

নাহলে এই এলাকায় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিলো যে দুই রাজ্যের সরকারের পতন হতে পারতো।

সেটাতে বিজেপির ক্ষতি হত।

তবে পরিস্থিতি এখনও পূরোপূরি স্বাভাবিক হতে পারেনি।

কেননা নাগাল্যান্ড ও মণিপুরের বিজেপি জোট সরকার পড়ে যেতে পারে।

এই দূই রাজ্যে বিজেপির শরিক দলের বিজেপি নাগরিকতা বিলের সমর্থন করতে রাজি নয়।

তবে বিল টা প্রস্তুত না হবার দরুন ঝামেলা হয়ত কেটে যেতে পারে।

মনিপুরে অবস্থ্যা এতটা খারাপ হয়েছিলো যে সরকারের তরফ সে ইন্টারনেট সেবা বন্দ করে দেওয়া হয়।

এখন নাগরিক বিল অতিক্রান্ত হওয়ার কারণে পরিস্থিতি সাময়িকভাবে শান্ত হতে পারে।

এভাবে বিজেপি আবারও এই বিল নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেবে না।

অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু এবং মনিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বিরেন সিংহ এই বিলটি জনসমক্ষে নিজেদের অসন্তোষ প্রকাশ  করেছেন।

পরিস্থিতি এমন হয়ে উঠেছিল যে কনরাড সাংমা কংগ্রেসের সাথে হাত মেলালে বিজেপি সমর্থিত সরকার পড়ে যেত।

নাগরিকত্ব বিলের বিষয়ে কিছু অনুরূপ পরিস্থিতি চলছে যেখানে উত্তর পূর্ব রাজ্যগুলির আঞ্চলিক দলগুলি বিজেপির প্রস্তাব গ্রহণ করতে পারেনি।

সংসদে রাফায়েলের ইস্যুতে রাগের কারণে এখন বিলটি কোল্ড স্টোরেজে চলে গেছে।

এই কারণে, এটি অনুমান করা যেতে পারে যে দুই রাজ্যে বিজেপি জোট সরকার এখনই বেঁচে থাকতে পারবে।

লোকসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি সমর্থিত সরকারগুলি যদি পতন হয় তবে বিজেপির পক্ষেও এটি একটি সমস্যা ছিল।

Loading...