সিবিআই ও পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ মুখোমুখি লড়াইয়ের মুডে

cbi versus kolkata police
Spread the love
  • একদিকে সিবিআই শিলং এ কোলকাতা পুলিশ কমিশনারকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে,

  • অন্যদিকে কোলকাতায় চলল সিবিআই এর প্রাক্তন আধিকারিকের পরিবারের সম্পত্তির তল্লাশী

কলকাতা: সিবিআই শনিবার কোলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে

শারদা চীটফান্ড কেলেঙ্কারী মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করল।

অন্যদিকে কোলকাতা পুলিশ গতকালই সিবিআই এর প্রাক্তন এক্টিং ডাইরেক্টর নাগেশ্বর রাও এর

পরিবারের সদস্যদের কাজের জায়গার তল্লাশী নিয়েছে।

এর সাথেই কেন্দ্র বনাম রাজ্য সরকারের রাজনৈতিক লড়াই অন্য মাত্রা নিয়ে নিচ্ছে।

এতে প্রমাণিত হচ্ছে যে এই লড়াই এবার সিবিআই ও পশ্চিম বঙ্গ রাজ্য পুলিশের লড়াইয়ের রূপ নিচ্ছে।

দুদিকেই অভিজ্ঞ আইপিএস অফিসাররা থাকায় এই লড়াই এর রেশ এবার পুরো দেশে পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

দেখা যাচ্ছে যে দুই পক্ষই নিজের-নিজের অবস্থান সম্পর্কে সচেতন এবং কেউই নিজের অবস্থান থেকে সরে আসতে চাইছে না।

কোলকাতার পুলিশ কমিশনার শনিবার সকালে নিজের উকিলের সাথে শিলং এ সিবিআই দফতরে পৌঁছান।

সেখানে কিছুক্ষণ কথাবার্তা হবার পর কমিশনারের উকিলকে বাইরে যেতে বলা হয়।

এর পর বেশ কিছুক্ষণ রাজীব কুমারকে সিবিআই এর অফিসাররা জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

কুমার সকাল ১১ টায় সিবিআই দফতরে পৌঁছান।

তাঁর সাথে তাঁর উকিল বিশ্বজীৎ দেব, আইপিএস জাভেদ শমীম এবং মুরলীধর শর্মা ছিলেন।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কোলকাতা ও দিল্লী থেকে সিবিআই এর অফিসাররা শুক্রবারই শিলং এ পৌঁছে গিয়েছিলেন।

রাজীব কুমারকে সিবিআই ঠিক কি জজ্ঞাসাবাদ করেছে এবং তিনি কি উত্তর দিয়েছেন,

এই সব ব্যাপারে সিবিআই কোনরকম তথ্য দিতে অস্বীকার করেছে।

রাও এর স্ত্রীর কোম্পানীর বিরুদ্ধে প্রমাণ জোগাড়ের চেষ্টা

অন্যদিকে কোলকাতায় সিবিআই এর প্রাক্তন এক্টিং ডাইরেক্টর নাগেশ্বর রাও এর

স্ত্রীর কোম্পানীর সাথে লেন দেন নিয়ে খোঁজখবর শুরু হয়েছে।

কোলকাতা পুলিশ গতকাল দুটি ঠিকানায় তল্লাশী চালিয়েছে।

পুলিশ জানতে পেরেছে যে এঞ্জেলা মার্কেন্টাইল প্রাইভেট লিমিটেড নামক কোম্পানীর সাথে

নাগেশ্বর রাও এর পরিবারের লোকজনের সম্পর্ক আছে। এই কোম্পানীটি টাকা পয়সা লেনদেনের কারোবার করে।

কোলকাতা পুলিশ লাউডন স্ট্রীটের একটি বাড়ীতে তল্লাশী অভিযান চালায়।

এছাড়াও পুলিশের একটি দল ডালহৌসী ক্লাব রোড এবং আরেকটি দল সল্ট লেকের সী এ ৩৯ নম্বর বাড়ীতে যায়।

হাজার হাজার লোকের সামনেই এই তল্লাশী অভিযান চলে।

এর থেকেই স্পষ্ট হয়ে গেল যে কোলকাতা পুলিশ সিবিআই কে পুরোপুরি খোলা ছাড়তে চাইছে না।

এই জন্যই প্রাক্তন আধিকারিকের আত্মীয়দের সম্পত্তির তল্লাশী করে কেন্দ্রীয় এজন্সীর ক্ষমতার কথা স্মরণ করিয়ে দিতে চাইছে।

সল্ট লেকে বাড়ীর কেয়ার টেকার জানিয়েছিল যে এখানে লালবাজার থেকে পুলিশ অফিসাররা এসেছিলেন।

তাঁরা নিজেদের সাথে ল্যাপটাপ ও অন্যান্য নথি পত্র নিয়ে গেছেন।

এই অফিসটি ওই বিল্ডিং এর নীচের ফ্লোরে চলে। সেইজন্য পুলিশ শুধু সেই  জায়গারই তল্লাশী নিয়েছে।

 

Author: Bangla R khabar

Loading...