My title page contents Press "Enter" to skip to content

বাংলাদেশ পাকিস্তান সম্পর্কের টানাপোড়েন বেড়েই চলেছে




কুটনীতিকের ভিসার মেয়াদ না বাড়ানোয় ফের উত্তেজনা

ঢাকাঃ বাংলাদেশ পাকিস্তান কুটনৈতিক সম্পর্কের টানাপোড়েন বেড়েই চলেছে।

সর্বশেষ বাংলাদেশ মিশনের একজন কাউন্সিলরের ভিসা নবায়নের বিষয়টি চার মাস ধরে

ঝুলিয়ে রাখার প্রতিবাদে বাংলাদেশের ইসলামাবাদ মিশন পাকিস্তানের নাগরিকদের জন্য

ভিসা ইস্যু কার্যক্রম সাময়িক ভাবে স্থগিত রাখার খবর পাওয়া গেছে।

এনিয়ে দুই দেশের সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে। কূটনৈতিক সূত্র বলছে, গত জানুয়ারিতে ভিসা নবায়নের

জন্য বাংলাদেশ মিশনের প্রেস কাউন্সিলর মুহম্মদ ইকবাল হোসেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন।

কিন্তু পাকিস্তান দীর্ঘদিন সেই আবেদন ঝুলিয়ে রাখে।

এছাড়া বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন বিষয় এবং একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার নিয়ে

২০১৩ সালে পাকিস্তান নাক গলালে দুই দেশের সম্পর্কে টানাপোড়েন শুরু হয়।

যার জের ধরে উভয় পক্ষই দুই দেশের কূটনীতিকদের ফিরিয়ে নিতে বাধ্য করে।

বাংলাদেশের বিদেশ মন্ত্রনালয়ের মহাপরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া) তারেক মোহাম্মদ ঢাকার একটি

অনলাইন নিউজ পোর্টালকে জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে পাকিস্তানের সরকারি ওয়েবসাইটে মানহানিকর বিভিন্ন লেখা প্রকাশ করা হয়।

একারণে ঢাকায় পাকিস্তানের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার শাহ ফয়সাল কাকরকে গত ১২ ফেব্রুয়ারি বিদেশ মন্ত্রণালয়ে তলব করে কড়া ভাষায় প্রতিবাদ জানায় ঢাকা।

পাশাপাশি লিখিত একটি প্রতিবাদপত্র দেয়া হলেও ইসলামাবাদ ঢাকাকে সন্তোষজনক কোন জবাব দিতে পারেনি।

গত ফেব্রুয়ারি থেকে ঢাকায় পাকিস্তানের কোনো হাইকমিশনার নেই।

ঢাকার একাধিক কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, পাকিস্তানের নিয়োগ দেওয়া নতুন হাইকমিশনার ঢাকায় বসে

সরকার এবং মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকায় তার এগ্রিমোর (নতুন হাইকমিশনারকে গ্রহণ

বিষয়ে সম্মতি বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি।

তবে পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করা হয়নি বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের বিদেশ মন্ত্রী একে আব্দুল মোমেন।

এবিষয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সামনে একথা বলেন তিনি।

বিদেশ মন্ত্রী বলেন, “আমরা কারও ভিসা দেওয়া বন্ধ করিনি।

কেউ কেউ ভিসা না-ই পেতে পারেন, যেটা সারা দুনিয়ায় হয়।

কিন্তু আমরা পাকিস্তানিদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করিনি।”

ইসলামাবাদে বাংলাদেশে হাই কমিশনের প্রেস কাউন্সেলর ও ভারপ্রাপ্ত ভিসা কাউন্সেলর মোহাম্মদ ইকবাল

হোসেনের ভিসার আবেদন চার মাস আটকে রাখায় ১৩ মে থেকে বাংলাদেশ পাকিস্তানের নাগরিকদের ভিসা

দেওয়া বন্ধ রেখেছে বলে মঙ্গলবার একাধিক জাতীয় দৈনিকে খবর প্রকাশিত হয়েছে।

বাংলাদেশ পাকিস্তান সম্পর্ক খারাপ হবার কথা ঢাকার কাগজে ছেপেছে

বিদেশ মন্ত্রী বলেন, নতুন নিয়োগ দেওয়া কর্মকর্তাকে পাকিস্তান ভিসা না দেওয়ায় দীর্ঘদিন থেকে

ইসলামাবাদে বাংলাদেশ মিশনে কন্সুলার উইংয়ে কোনো কর্মকর্তা নেই।

আমাদের হাই কমিশনার আরেক কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন। কিন্তু তার ভিসার মেয়াদও শেষ হয়েছে।

পাকিস্তান তার ভিসা নবায়ন করেনি।

এ অচলাবস্থার কারণ ব্যাখ্যা না করলেও পাকিস্তান এ সমস্যার সমাধান হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

গতবছর ইসলামাবাদ থেকে প্রস্তাবিত নতুন পাকিস্তান হাই কমিশনারকে বাংলাদেশ গ্রহণ না করার প্রতিক্রিয়ায়

এটা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, “এটা অপ্রাসঙ্গিক এই কারণে যে তারা একটা নাম পাঠিয়েছে

আমরা সেটা গ্রহণ করিনি। তাহলে আরেকটা নাম পাঠাবে। এটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া।

কিন্তু তারা নতুন কোনো নামই পাঠায়নি। আমাদের দিক থেকে কেনো সমস্যা নেই।

তারা নতুন নাম দিলে আমরা গ্রহণ করব।” ২০১০ সালে বাংলাদেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরুর পর

থেকে দু দেশের মধ্যে কূটনৈতিক উত্তেজনা চলছে।

ওই বিচার শুরু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পাকিস্তান প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে।




Spread the love

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Mission News Theme by Compete Themes.