ভারতে মূর্তি ভাঙার ‘হিড়িক’ – পাগলামি বললেন রাজ্যসভার চেযারম্যান

0 30
নয়া দিল্লি (এজেন্সী) –   ভারতে বিভিন্ন এলাকায় মূর্তি ভাঙার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানানোর পাশাপাশি একে লজ্জা বলে অভিহিত করেছেন সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার চেযারম্যান এম বেঙ্কাইযা নাইডু| তিনি  বুধবার সংসদে বলেন, গণমাধ্যম থেকে মূর্তি ভাঙার ঘটনা জানতে পেরেছি| যারা এরকম করছেন তাদের পাগলামিই প্রকাশ পাচ্ছে|
এ ধরণের ঘটনা তামিলনাড়ু, ত্রিপুরা ও পশ্চিমবঙ্গে হয়েছে| আমারে বিশ্বাস সংশ্লিষ্ট এজেন্সি এর বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেবে|
ত্রিপুরায় বামফ্রন্টকে পরাজিত করে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর সেখানে সিপিএমের দফতরে ভাঙচুর ও আগুন ধরিযে দেযাসহ বুলডোজার দিযে ভেঙে ফেলা হয় লেনিনের দু’টি মূর্তি|
 মঙ্গলবার রাতে তামিলনাড়ুর ভেলোরে দ্রাবিড় জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের নেতা এবং সমাজ সংস্কারক ই ভি আর রামস্বামীর মূর্তিও ভাঙচুর করা হয়|

ভারতের ওনেক জায়গায় মূর্তি ভাংগা হয়েছে

মঙ্গলবার রাতেই উত্তর প্রদেশের মিরাটে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা ড. বি আর আম্বেদকরের মূর্তিও ভাঙচুর করেছে| ওই ঘটনার প্রতিবাদে আজ দলিত সম্প্রদাযে মানুষজন সংশ্লিষ্ট এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে| প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেখানে নযা মূর্তি স্থাপনের আশ্বাস দেযা হলে অবরোধ প্রত্যাহার করে নেযা হয়|
এসব ঘটনার জের না মিটতেই বুধবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের কোলকাতায় হিন্দুত্ববাদী নেতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যাযে মূর্তি ভাঙার চেষ্টা হয়| আজ হাতুড়ি ও ছেনি দিযে আঘাত করে শ্যামাপ্রসাদের মূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত করাসহ তাতে কালো কালি লেপে দেয় ৬ তরুণ ও ১ তরুণী| তারা নিজেদেরকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালযে ছাত্র বলে পরিচয় দিয়েছে|
পুলিশ ওই ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার করেছে| ধৃতদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি পদক্ষেপ নেযা হবে বলে কোলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার জানিয়েছেন|
মূর্তি ভাঙার খবর পেযে রাজ্যের শাসকদলের তৃণমূলের স্থানীয় বিধাযক ও মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় এবং স্থানীয় কাউন্সিলর মালা রায় ঘটনাস্থলে যান এবং তারা ওই ঘটনার নিন্দা করেন|
তৃণমূল নেত্রী মালা রায় বলেন, ‘যারই মূর্তি হোক আমরা তা ভাঙার বিরুদ্ধে| এখানে বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষদের অনেক মূর্তি সংরক্ষিত থাকে| তৃণমূলের সংস্কৃতি এটা নয়| মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলে দিয়েছেন তিনি মূর্তি ভাঙার বিরুদ্ধে|’
এদিকে, লেনিনের মূর্তি ভাঙা প্রসঙ্গে সিপিআই (এম) নেতা মহম্মদ সেলিম এমপি বলেন, ‘ওটা শুধু একটি মূর্তি ভাঙা নয়, আসলে এর মাধ্যমে ওদের অবস্থান স্পষ্ট হযে গেছে| বলা হচ্ছে, একজন বিদেশির মূর্তি ভাঙা হচ্ছে| তাহলে গান্ধীজী,  রবীন্দ্রনাথ, নেতাজীর মূর্তিও আছে অন্য দেশে| সুতরাং, লেনিন বিদেশি বলে তার মূর্তি ভাঙা যায়?’
মুহাম্মদ সেলিম প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী মার্কস আর মাওবাদীদের পার্থক্য জানেন না| ওরা যদি ভাবে এভাবে বামপন্থিদের নির্মূল করা যাবে তাহলে মূর্খের স্বর্গে বাস করছেন|’
সিপিআই(এম) নেতা সীতারাম ইযেুরি আজ বলেছেন, সঙ্ঘপরিবারের ঐতিহ্য সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি| গান্ধী হত্যা থেকে শুরু করে বাবরী মসজিদ ধ্বংস পর‌্যন্ত এসব চলে আসছে|

You might also like More from author

Comments

Loading...