মুখ্যমন্ত্রী জনসংবাদ কেন্দ্রে ১৮টি অভিযোগের শুনানী হল. দেওয়া হলে নির্দেশ

0 6
রাঁচি (সং) – মুখ্যমন্ত্রী জনসংবাদ কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগের পর জেলায় জেলায় নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
সাপ্তাহিক সমীক্ষা আজ সুচনা ভবনে সম্পন্ন হয়|
মুখ্যমন্ত্রী সচিবালয়ে সংযুক্ত সচিব শ্রী রমাকান্ত সিংহ ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে মত আঠেরোটি মামলার সমীক্ষা করেন|
সেইসব জেলার ও বিভাগের নোডল আধিকারিকদের প্রযোজনীয মতামত দিলেন|
এই সময়ে তিনি বললেন বিভাগ আর জেলার আধিকারিকেরা মামলা সবের শুধুমাত্র এদিক ওদিক না করে সেটি সমাধানের দিকে নজর রাখুক|
মানুষের অভিযোগগুলির সমাধানের ক্ষেত্রে কোনভাবেই গাফিলতি বা শিথিলতাকে সহ্য করা হবে না| পানীয জলের সংকটের মত মামলাগুলিকে সকল অধিকারী গুরুত্বের সঙ্গেই নেবে| এই বিষয়ে দিকে দৃষ্টি রাখতে হবে য়ে নাগরিকদের পানীয জল সংকটের মুখোমুখি য়েন হতে না হয|
রাঁচির মোরাবাদীতে ট্রাইবাল ডেভেলাপমেন্ট সোসাইটির পুস্তাকালয ও প্রশাসনিক ভবনের মেরামত বিষয়ে য়ে টেন্ডার ভের হয সেটির ক্ষেত্রে ফৌজ দারী আচরনের প্রমানপত্রের আধারে জিতেন্দ্র সিঙ্ঘকে দেওযা আর অভিযোগের পরেও ছেচল্লিশ লক্ষ অর্থ দেওযার বিষয়ে এখনও অবধি বিভাগের দ্বারা কোন প্রকারের পদক্ষেপ নেওযা হচ্ছে না অন্যদিকে অপরাধীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েছের নির্দেশ ইতিমধ্যেই হয়েছে| এই বিষয়ে সংযুক্ত সচিবের নির্দেশ এক সপ্তাহের মধ্যে অপরাধীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েছের নির্দেশ দেন|
গিরিডির সরিযা ডিভিশনে বর্ষ ২০০৮ থেকে অসম্পুর্ন থাকা হাসপাতাল ভবনটির নির্মান বিষয়ে প্রশ্ন এলে গিরিডির সিবিল সার্জেন জানায স্বাস্থ্য বিভাগ রিভাইজ সিস্টেম চার্টটি পাঠিয়ে দেওযা হয়েছে| এই মামলা সম্বন্ধে সংযুক্ত সচিব বললেন শুধু শুধু মামলাটিকে এদিক ওদিক না ঘোরানোই উচিত্| নিজেদের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করে ভবন নির্মানের কার্যলটি আরম্ভ করা |

বেতন না পাওয়ার ব্যাপারেও কড়া নির্দেশ জারি

আদিম উপজাতি সরাসর নিযুক্তি প্রকল্পতে দুমকার কালু দেহরিকে মুখ্যমন্ত্রী শ্রী রঘুবর দাস ২০১৬ বর্ষেই নিযুক্তি পত্র দেন কিন্তু এখনও অবধি তাঁকে বেতন দেওযা হচ্ছে না|
এই মামলাতে দুমকার নোডল আধিকারিকেরা জানালো যে আবন্টনের অভাবে তাঁকে পয়সা দেওযা যাচ্ছে না|
পুনরায স্কুল শিক্ষা বিভাগের নোডল আধিকারিক জানালো এই মাসেই আবন্টন উপলব্ধ হয়ে যাবে|
অভিযোগের ভিত্তিতে সংযুক্ত সচিব শ্রী সিংহ অবিলম্বে এই বিষয়ে সমাধানের নির্দেশ দেন|
রাঁচির লাপুঙ্গে ২০১৩বর্ষে নকশালদের হাতে সত্যদেব মিশ্রার নিহত হওযার পরেও তার পরিবারকে চাকুরী বা ক্ষতিপূরণ না হওযার ব্যাপারে গৃহ, কারা ও বিপর্যিয প্রবন্ধন বিভাগের নোডল আধিকারিককে জানালেন বিভাগের স্তরে সকল্প্রকারের পদিক্ষেপ নেওযা হয়ে গেছে|
এখন জেলা ও জল সম্পদ বিভাগের তদন্ত বাকী আছে| এই বিষয়ে জেলা জানায সব রকমের পদক্ষেপই প্রক্রিযাধীন অবস্থায আছে| শীঘ্রই নিযুক্তি পত্র দেওযা হবে| সংযুক্ত সচিব পনেরো দিনের মধ্যে সকল প্রক্রিযা সম্পুর্নের মাধ্যমে সমস্যার সমাধানের নির্দেশ দেন|
বোকারো ও দুমকার সাথে যুক্ত ঝাড়খণ্ড ও জেপি আন্দোলনকারীকে পেনশন দেওযার মামলাতে সংযুক্ত সচিব বিভাগের কাছে উত্তর চান তখন জানানো হয য়ে এই বর্ষ থেকে এই দুই আন্দোলনকারীকে পেনশন দেওযা আরম্ভ হয়ে যাবে|
সংযুক্ত সচিব অবিলম্বে পেনশন দেওযা আরম্ভে করতে নির্দেশ দেন|
চাতরার উতক্রমিত মধ্য বিদ্যালয়েছে সাত বর্ষ থেকে অসম্পুর্ন হয়ে পড়ে থাকা ভবন নির্মান হিসাবে বিনা কাজ করেই পাঁচ লক্ষ পঞ্চান্ন হাজার টাকা বের করার বিষয়ে চাতরার নোডল আধিকারিক জানায ভবন নির্ম্নানের কার্য্ শীঘ্র সম্পুর্ন হয়ে যাবে|
এই বিষয়ে সংযুক্ত সচিব অবিলম্বে কার্য আরম্ভ করার নির্দেশ দেন এমনটি না হলে অপরাধীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ে করে নিয়ে রিপোর্ট পাঠানোর নির্দেশ দেন|
বোকারোর মানপুর আর ধানবাদের ঝরিযা কোলিযারির এলাকাতে পানীয জলের গভীর সঙ্কট বিষয়ে সংযুক্ত সচিব এই দুটি জেলার নোডল আধিকারিকদের কাছ থেকে জবাব চান|
তারা শীঘ্রই এই সমস্যা সমাধানের কথাটি বললেন| তিনি এই বিষয়ে অবিলম্বে সংকট সমাধানের নির্দেশ দেন|
এছাড়া খুঁটি, পাকুড়, দেওযাঘর, রাঁচি, গোড্ডা জেলা ও রাজস্ব নিবন্ধন এবং ভু সুধার বিভাগ, খাদ্য সরবরাহ বিভাগ, গ্রামান্নোযন বিভাগ , উর্জা বিভাগ, শ্রন নিযোজন এবং প্রশিক্ষণ বিভাগ ও কৃষি, পশুপালন এবং সহকারিতা বিভাগ সম্বন্ধীয বিভাগের অভিযোগ সবের সমীক্ষা করেন|
আজকের সমীক্ষা বৈঠকের পড়ে স্কুল শিক্ষা এবং স্বাক্ষরতা বিভাগের ঝুলে থাকা অভিযোগ সবের বিশেষ সমীক্ষা হয|
এই বিশেষ সমীক্ষাতে বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শৈলেশ কুমার চৌরিসিযা উপস্থিত ছিলেন|
তিনি বিভাগের ঝুলে থাকা অভিযোগ বিষয়ে সকল জেলার নোডল আধিকারিকদের নির্দেশ দেন বিভাগ সম্বন্ধীয অভিযোগের সমাধানের ক্ষেত্রে দ্রুততার প্রযোজন আছে|
বিদ্যালয়ে বা মধ্যাহ্ন ভোজন বিষযক অভিযোগ সবকে প্রাথমিকতাতে রেখে কাজ করতে বলা হয|
এই সময়ে তিনি খুঁটি, চাইবাসা, কোডারমা, সাহেবগঞ্জ, চাতরা বা অন্যান্য জেলার বিভাগের আধিকারিকদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সিং এর মাধ্যমে অভিযোগ বিষয়ে দরকারী মতামত দেন|

You might also like More from author

Comments

Loading...