ভারতে স্বেচ্ছামৃত্যুর অধিকারের ঐতিহাসিক স্বীকৃতি সুপ্রিম কোর্টের ফয়সলা

0 43
নযা দিল্লি (এজেন্সী) – দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভোগা ব্যক্তিদের স্বেচ্ছামৃত্যুর অধিকার দিযে ঐতিহাসিক রায় দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট|৯ মার্চ ভারতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বে ৫ বিচারপতির সাংবিধানিক বেঞ্চ এই রায় দেয়| রাযে বলা হয়েছে, সম্মানের সঙ্গে মৃত্যুবরণের অধিকার মানুষের রয়েছে|
রায়কে উদ্বূত করে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, এই অধিকার কার্যকর হবে নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনে|
ভারতের সুপ্রিম কোর্টভারতীয় সংবিধান অনুসারে আত্মহত্যা অপরাধ| একইসঙ্গে স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে ছিল না কোনও আইন| স্বেচ্ছামৃত্যু নিয়ে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হযে ‘কমন“কজ’ নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বলেছিল, ‘বেঁচে থাকাটা মানুষের ব্যক্তিগত ধিকার|
ঠিক তেমনই মরণাপন্ন কোনও ব্যক্তি যদি রোগ“যন্ত্রণা ভোগ করার বদলে সম্মানের সঙ্গে মরতে চান, তবে তাকেও সে অধিকার দেওযা উচিত|’ সোমবার সে অধিকারই দিলেআ ভারতের সুপ্রিম কোর্ট|
ভারতের শীর্ষ আদালত জানিযে দিয়েছে, চিকিত্সায় সুস্থ হতে পারবেন না, এমন কোনও ব্যক্তি যদি ভেন্টিলেটর কিংবা লাইফ সাপোর্ট সিস্টেমের সাহায্যে বেঁচে থাকতে না চান, তবে তাকে সজ্ঞানে ‘লিভিং উইল’ করে স্বেচ্ছামৃত্যু চেয়ে রাখতে হবে|
রোগী যদি এমন অচেতন অবস্থায় পৌঁছে যান যে সেই অবস্থা থেকে ফেরানোর আর সম্ভাবনা নেই, তখন সেই উইল বা ইচ্ছাপত্রের ভিত্তিতে হাইকোর্টে আবেদন করতে পারেন রোগীর ঘনিষ্ঠ বন্বু বা নিকট কোনও আত্মীয়|
এর পর আদালতের নির্দেশের ভিত্তিতে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড বিষয়টি নিযে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে| যতদিন না স্বেচ্ছামৃতু্য় নিযে আইন আসছে ততদিন পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের কড়া গাইডলাইন মেনে এই অধিকার পাবে ভারতবাসী|

You might also like More from author

Comments

Loading...