বিজেপি শাসিত দুই রাজ্যকে মুখের ওপর জবাব সুপ্রিম কোর্টের, দাপুটে রায সর্বোচ্চ আদালতের

0 65
নযা দিল্লি (এজেন্সী) – সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্রেও কাজ হযনি| নাক গলিযেছিল বিভিন্ন রাজ্য সরকার| যার জেরে ২৫ তারিখ পদ্মাবত “কে বিজেপি শাসিত চার রাজ্যে মুক্তি না দেওযার সিদ্ধান্ত নেওযা হযেছিল| এরপরেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয সিনেমার নির্মাতা ভাযাকম ১৮| ১৪ তারিখ সর্বোচ্চ আদালত জানিযেছিল সমস্ত রাজ্যেই একইসঙ্গে মুক্তি পাবে সঞ্জয লীলা বনশালি পরিচালিত এই ছবি|
পদ্মাবতকে আটকানোর শেষ চেষ্টাও জলে গেল বিজেপি“র| সারা দেশে একই সঙ্গে মুক্তি পাবে পদ্মাবত ১৪ জানুযারি সেই রায দিযেছিল সর্বোচ্চ আদালত| এদিকে এই রাযে বিরুদ্ধে ফের একবার আদালতের দ্বারস্থ হযেছিল গুজরাত ও মধ্যপ্রদেশ তাদের দাবি ছিল তাদের রাজ্যে বন্ধ করা হোক পদ্মাবতের মুক্তি| কার্যওত এই দুই রাজ্যের নক্কারজনক প্রস্তাবে চড় মারল সুপ্রিম কোর্ট| তারা জানিযে দিল দেখাতেই হবে পদ্মাবত|
সুপ্রিম কোর্ট এদিন নিজের রাযে জানিযেছে , ’এটা একটা নির্দেশ যা মান্য করতেই হবেই, আপনারা (রাজ্যগুলি) নিজেদের বাসিন্দাদের ছবিটি না দেখতে যাওযার আবেদন করুন|’
প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র জানিযেছেন ,’আমরা একটা নির্দেশিকা দিযেছি, সেটা সকলকেই মান্য করতে হবে|’রাজ্যদের কার্যুত ভর্ত্সনা করে সুপ্রিম কোর্ট জানিযেছে, রাজ্যে আইন শৃঙ্খলার অবনতির অজুহাত দেখিযে কোনও সিনেমার রিলিজ হওযা আটকানো যায না| যেটাকে ছাড়পত্র দিযেছে সেন্সর বোর্ড|
এই আবেদনে রাজ্য গুলির সঙ্গে তৃতীয পিটিশনার হিসেবে ছিল কার্ন সেনাও| তারাও আবেদন জানিযেছিল ইতিহাস বিকৃত করেছে পদ্মাবত, তাই এই ছবির মুক্তি আটকানো হোক| রাণী পদ্মিনীর সঙ্গে মানুষ আবেগপূর্ণ ভাবে যুক্ত তাদের আবেগ আহত হবে এই সিনেমায|
এছাড়াও এই ছবি মুক্তি আটকে রাস্তা আটকানো, বাস পোড়ানো , বিভিন্ন কাজ করে চলেছে| কিন্ত এসব করেও সর্বোচ্চ আদালতের মত বদলানো যাযনি|
এদিন সুপ্রিম কোর্টের পক্ষ থেকে এও জানানো হয, বিশেষজ্ঞরা এই ছবি দেখেছেন, পাশাপাশি ছবিতে বিজ্ঞপ্তিও থাকবে| সুপ্রিম কোর্টের এদিনের নির্দেশের পর বিজেপি“র সমস্ত অস্ত্র ভোঁতা হযে গেল| আর আইনি পথে কোনও কিছু করার রইল না কোনও রাজ্যের| অতএব ২৫ তারিখ সারা ভারতে একসঙ্গে মুক্তি পেতে চলেছে সঞ্জয লীলা বনশালির পিরিযড ড্রামা ’পদ্মাবত’|

You might also like More from author

Comments

Loading...