পাত্রসায়েছে মমতার জনসভার পর আজ প্রশাসনিক বৈঠক বাঁকুড়ায়

মমতার
অনিরুদ্ধ সরকার
বাঁকুড়াঃ পঞ্চায়েত ভোটের আগে বাঁকুড়া সফরে মুখ্যমন্ত্রীর জনসভা| ফের জঙ্গলমহলের এই দুদিন সফরে প্রথমদিন পাত্রসায়েছের হাটতলা ময়দানে দুপুর তিনটে নাগাদ উপস্থিত হন| মঞ্চে ওঠার সময় জনগনের উল্লাস লক্ষ করা যায়| প্রতিবারের ন্যায় এবারও বেশ কিছু প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিল্যানাস করেন তিনি|
এ দিন সভামঞ্চ স্থল থেকে ৪৫ টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ৭২ টি প্রকল্পের শিল্যানাস করেন তিনি| যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ১২ শয্যা বিশিষ্ট সিসিইউ বিষ্ণুপুর ও বোলপুর সুপার ফ্যাসিলিটি হাসপাতালে|
পাত্রসায়েছের বেলুটে শালী নদীর উপর নিবনির্মিত সেতু, খাতড়ায় স্পোর্টস একাডেমী, এছাড়াও বাঁকুড়া শহরের সতীঘাট এলাকায় গন্ধেশ্বরীর উপর সেতু যার জন্য বাকুড়া বাসীকে প্রতিবছর বেশি বৃষ্টি হলে দূর্ভোগের কবলে পড়তে হয় তা উদ্বোধন করেন| দ্বারকেশ্বর নদের উপর সেতু, শালতড়া ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নতূন ভবন,গাংদোযা ইকোপার্ক,এ ছাড়াও বহু রাস্তার শিলান্যাস করেন তিনি|
এ দিন সভা মঞ্চ থেকে তিনি বলেন জেলায় যাতে ভালো কাজ হয় তার জন্য বার বার আসি| তিন মাস আগেই বাঁকুড়া এসেছিলাম ভোট বলে নয়| সভামঞ্চ থেকে বিজেপি কে এক হাত নিযে তিনি বলেন দিল্লিতে বিজেপি সরকার বড়ো বড়ো কথা বলে কাজ কিছু করতে পারে না|
সরকার এলে কাজ নয় হামলা হবে| লেলিন, নেতাজি, স্বামীজির মূর্তি ভাঙা মেনে নেবো না| তোমাদের টার্গেট বাংলা হলে বাংলার টার্গেট লালকেল্লা|
অত্যাচার হলেই প্রতিবাদ করবো মানুষের বিপদে তৃনমূল আছে থাকবে| সিপিএম এর ক্ষেত্রেও প্রতিবাদ করেছি| এদিন সভা শেষ করে বাঁকুড়া সার্কিট হাউসে রাত্রি যাপন করেন তৃনমূল সুপ্রিমো|
আজ হঠাত বুধবার দুপুর ১ টা নাগাদ বাঁকুড়া পুলিশ লাইনে জেলার আধিকারিক ও জনপ্রতিনিধিদের নিযে প্রশাসনিক বৈঠক সারবেন|
Please follow and like us:
Loading...