ছত্তিশগড়ে ফের মাও নাশকতা, শহিদ ৯ সিআরপিএফ জওয়ান

ছত্তিশগড়ে
ছত্তিশগড় (এজেন্সী) – ফের একবার ছত্তিশগড়ে মাওবাদীদের হামলার শিকার হলেন সিআরপিএফ জওযানরা| জানা গিযেছে ,এক তল্লাশি অভিযানের সমযে ,ছত্তিশগড়ের সুকমাতে মাওবাদীদের হামলায় ৯ জন সিআরপিএফ জওযান শহিদ হয়েছেন|
প্রাথমিকভাবে জানা যাচ্ছে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটিযে এই নাশকতা চালানো হয়েছে| সিআরপিএফ“এর ’মাইন প্রোটেকটেড ’ গাড়িতে এই বিস্ফোরণ ঘটানো হয়|
ঘটনার পরও চলতে থাকে গুলির লড়াই| মাও হামলায় , আহত হয়েছেন আরও ৬ জন সিআরপিএফ জওযান| যাঁদের মধ্যে ৪ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক|
সূত্রের খবর , সুকমায় সিআরপিএফ“এর তল্লাশি অভিযানের সমযে এই ঘটনা ঘটেছে| জঙ্গলের ভিতর শতাধিক মাওবাদী লুকিযে থেকে সিআরপিএফ জওযানদের ওপর হামলা চালিযেছে বলে খবর|
সুকমাতে কিস্তরাম এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে এই গুলির লড়াই শুরু হয় বলে খবর| জানা গিযেছে, মাইন প্রোটেক্টিভ গাড়িটিকে বিস্ফোরণে ওড়ানোর জন্য প্রচুর পরিমাণ বিস্ফোরক একত্রিত করেছিল মাওবাদীরা|
এদিন,সকালে সুকমার কিস্তারাম এলাকার চিরুনি তল্লাশি চালাচ্ছিলেন সিআরপিএফ এর ২১২ তম ব্যাটালিযানের জওযানরা| সেই সমযে এই হামলা চলেছে বলে খবর|
তবে এইবার কয়েনজন প্রাক্তন পুলিস এবং প্যারামিলিটারী অফিসাররা মত প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে, বার বার পুলিস বা সুরক্ষা বাহিনী এক রকমের ভূল করছে।
অনেক আগে থেকে এই ধরনের জায়গায় যেতে হলে যে সব ব্যাপারে সাবধান থাকতে বলা হয়, সেগুলোর পালন না করলে এই ধরনের ঘটনা ঘটে যায়।
আসলে জংগলের ভেতরে কে কোথায় লুকিয়ে আছে, সেটা আগে থেকে বোঝা যেতে পারে না। তাই এই সব জায়গায় সুরক্ষা দলকে বার বার বলা হয়েছে যে তাদের একটা দল যেন পায়ে হেঁটে আগে যায়। এই দলের চোখে ইলেকট্রিক তার ধরনের কিছূ পড়লে আগে থেকে সাবধান হওয়া যায়। তাতে পুলিসের ক্ষতি কম করা যায়। শুধু পায়ে পায়ে হাটার কষ্ট এড়াতে এই নিয়মের পালন করা হয় না। তাই এই ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে।
Please follow and like us:
Loading...