অশ্লীল ভঙ্গিতে’ নাচতে হয় বড় কর্তাদের খুশি করতে, কাজ আসলে হাসপাতালের নার্স

অশ্লীল

সিউল (এজেন্সী) – অশ্লীল নাচের জন্য এবার দক্ষিণ কোরিয়া তোলপাড়। হাসপাতালের নার্সদের
কাজ রোগীদের সেবাশুশ্রূষা করা| কিন্তু সেই নার্সদের হাসপাতালের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের খুশি
করতে ‘অশ্লীল ভাবে নাচতে হয় তাদের।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম মিরর ও ডেইলি মেইলের খবরে বলা হযেে, হাসপাতালের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের
খুশি করতে নাচতে হযেে নার্সদের|

দক্ষিণ কোরিযার একটি হাসপাতালের পদস্থ কর্মকর্তাদের খুশি করতে যৌন উত্তেজনাপূর্ণ অঙ্গভঙ্গি
করেই নাচতে হয নার্সদের| সেই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পরই শোরগোল পড়ে যায|

গত বছর অক্টোবরে হল্লাম ইউনিভার্সিটি স্যাকরেড হার্ট হসপিটাল নামের একটি হাসপাতালের এক
অনুষ্ঠানে শর্ট স্কার্ট, ছোট প্যান্ট, টিউব টপের মতো বিভিন্ন ধরনের পোশাক পরে ওই নার্সদের
নাচতে বলা হয|

অশ্লীল নাচের ভিডিও ছড়ায়

বিষযটি নিযে প্রথমে চুপ থাকলেও পরে একজন নার্স এর ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে
পোস্ট করেন| এরপরই দ্রুত ভিডিও ছড়িযে পড়ে|

তবে এটা প্রথমবার নয, এর আগেও একাধিকবার নার্সদের এ ধরনের পোশাক পরেই নাচতে বাধ্য
করা হয বলে অভিযোগ রযেে|
শুধু হাসপাতালের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সামনেই নয, হাসপাতালে ভর্তি হওযা রোগী ও তাঁদের
স্বজনদের সামনেও তাঁদের ‘অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি’ করে নার্সদের নাচতে হযেে|

অশ্লীল নাচের তদন্তের নির্দেশ

সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওযার পরই ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দেওযা হযেে দেশটির প্রশাসনের পক্ষ থেকে|

যে নার্স এই ভিডিও ফুটেজ ছেড়েছেন, তিনি মিররকে বলেন, ‘এটাই প্রথমবার নয| এর আগেও নার্সদের
‘আবেদনমযী’ ভঙ্গিতে নাচতে বলা হয়েছে|

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নাচে অংশ নিতে বলে মূলত চাকরিতে আসা নতুনদের| কারণ, তারা এটা প্রত্যাখ্যান
করতে পারেন না|’ তিনি বলেন, ‘আমাদের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সামনে নাচতে বাধ্য করা হয|’

গর্ভবতী নার্সে কেও ছোট পোশাক পরে নাচতে হয়েছে

নার্সদের দুই থেকে তিন ঘণ্টা পর‌্যন্ত মঞ্চে নাচতে বাধ্য করা হয| এমনকি গর্ভবতী হওযা সত্ত্বেও
একজন নার্সকেও ছোট পোশাক পরে অশ্লীল ভঙ্গিতে নাচতে হযেে|
কিন্তু চাকরি হারানোর ভযে ওই নার্স কিছুই বলতে পারেননি|

কোরিযা টাইমসের বরাত দিযে মিররের খবরে বলা হযেে, নার্সদের সঙ্গে এমন আচরণের ঘটনা
তদন্ত করছে কোরিযান নার্সেস অ্যাসোসিযেন|

নাচে অংশ নেওযা অপর একজন সেবিকা বলেন, নাচার সময নিজেকে কীভাবে আবেদনমযী ও
আকর্ষণীযভাবে তুলে ধরা যায, একজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা সে ব্যাপারে নির্দেশনা দেন|

Originally posted 2017-11-17 19:52:17.

Please follow and like us:
Loading...